বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রাজনগরের জোড়া খুনের ৫আসামী গ্রেফতারবকশীগঞ্জে বিনামূল্যে সার ও মাসকালাই বীজ বিতরণরাজনগরের সোনাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক আব্দুল হাকিম রাজসৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে আল্ট্রা সনোগ্রাম মেশিন থাকলেও সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরাবিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে সিভি জমা দিলেন ১০ আ’লীগ নেতাবিশ্বনাথ পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী মো. দবির মিয়া সকলের দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেনসিলেট-সুনামগঞ্জ মহা সরক দূর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ২শান্তিগঞ্জে জামায়াতের পক্ষ থেকে নতুন ঘর প্রদানরাজনগরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ২ জন নিহত,আহত ৪চরগরবদি চরাঞ্চলে লাঠিয়াল বাহিনীর তান্ডব, ৫ একর জমির রোপা আমনের ক্ষেত বিনস্ট

৪র্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলায় বিশ্বনাথে কিশোর গ্রেপ্তার

ফারুক আহমদ
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৬ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৪০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযুক্ত ইমন মিয়া (১৫)’কে গ্রেপ্তার করেছে সিলেটের বিশ্বনাথ থানা পুলিশ। ইমন নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার বাড়ই গ্রামের আতিক মিয়ার পুত্র ও বিশ্বনাথ সদর ইউনিয়নের পূর্ব শ্বাসরাম গ্রামের অস্থায়ী বাসিন্দা। বুধবার দিবাগত রাতেই পূর্ব শ্বাসরাম এলাকা থেকে ধর্ষক ইমনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এব্যাপারে স্কুল ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে বিশ্বনাথ থানায় ইমনের বিরুদ্ধে ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে’ মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ১৫ (তাং ২৫/০৮/২০২১ইং)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম শ্বাসরাম গ্রামের ৪র্থ শ্রেণীর ওই ছাত্রী বুধবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে খেলার উদ্দেশ্যে পাশ্ববর্তী পূর্ব শ্বাসরাম তার সহপাঠির বাড়িতে যায়। খোশগল্পের এক পর্যায়ে বান্ধবী পুকুর ঘাটে গেলে, সে তার মায়ের সাথে কথা বলছিল। তখন পাশাপাশি বাড়িতে বসবাসকারী বখাটে কিশোর ইমন তাকে ডেকে গ্রামের সেলিম মিয়ার রান্নাঘরে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এরপর ইমন সেখান থেকে পালিয়ে যায়। দীর্ঘ সময় ঘটনাস্থলে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকে ওই ধর্ষণেল শিকার হওয়া স্কুল ছাত্রী। দীর্ঘ সময় বাড়িতে তার অনুপস্থিতি দেখে, অনেক খোঁজাখুজি করার এক পর্যায়ে সেলিম মিয়ার রান্না ঘর থেকে তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করেন ভিকটিমের দাদী।
খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত কিশোর ইমনকে গ্রেপ্তার করে থানা পুলিশ।

ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের ও ধর্ষক ইমনকে গ্রেপ্তারের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000