মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউপি আ’লীগের সভা ও দোয়া মাহফিলপটুয়াখালীতে মিথ্যা বানোয়াট ও ভুয়া সনদপত্র দিয়ে দীর্ঘ দিন চাকুরী ও অবসর ভাতা গ্রহণের অভিযোগ উঠেছদেওয়ান বাজার ইউনিয়ন জামায়াতের ঢেউটিন বিতরণশোক দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথ পৌর কৃষক লীগের সভা ও দোয়া মাহফিলনন গিয়ার সাইকেল দিয়ে অদম্য সাহসী যুবকের ১০০তম সেঞ্চুরি রাইড সম্পন্নবকশীগঞ্জের চন্দ্রাবাজ আল নূর জামে মসজিদের নির্মাণ কাজের উদ্বোধনবিশ্বনাথে শিক্ষার্থীদের ‘আলতাফ-আফিয়া ট্রাস্ট’র বৃত্তি প্রদান করেন নুনু মিয়াসিলেট মিডিয়া কর্পোরেশন ও ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তজার্তিক অনলাইন গ্রুপ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ঢেউটিন দিলোপটুয়াখালীর দুমকিতে কৃষককে ‘অপহরণের চেষ্টার সময়’ আটক-১বিশ্বনাথে পিএফজি’র ফলোআপ সভা অনুষ্টিত

হবিগঞ্জে একদিনে ৩ জনের লাশ

ডেস্ক রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১
  • ৩০১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় এক দিনে ৩ জন আত্মহত্যা করেছেন বলে খবর পাওয়া গেছে।

এর মধ্যে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এক বৃদ্ধ ও এক পিকআপ চালক আত্মহত্যা করেন এবং হারপিক পান করে এক যুবকের মৃত্যু হয় বলে জানা যায়।

শুক্রবার (২১মে) গলায় ফাঁস লাগানো দুইজনের লাশ উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

অপরদিকে হারপিক পানে নিহত যুবকের লাশ সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্ত শেষে দাফন করার কথা রয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, শুক্রবার (২১ মে) ভোর রাতে উপজেলার সদর ইউনিয়নের পশ্চিম তিমিরপুর গ্রামের বৃদ্ধ নজির মিয়া (৭০) বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি গাছের সাথে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে নবীগঞ্জ থানার এসআই লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঝুলন্ত অবস্থায় নজির মিয়ার (৭০) মৃতদেহ উদ্ধার করে।

এদিকে একই দিন গভীর রাতে বাড়ির আম গাছের ডালের সাথে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থায় খালেদ মিয়া (৩০) নামের এক পিকআপ চালকের মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত খালেদ মিয়া পৌর এলাকার গন্ধ্যা গ্রামের লেচু মিয়ার ছেলে।

অপর দিকে উপজেলার ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নের কৈখাই গ্রামের মৃত আলতাব হোসেনের ছেলে আলী হাসান (১৮) বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে পরিবারের লোকজনের অগোচরে হারপিক পান করেন। তার অবস্থার অবনতি ঘটলে শুক্রবার ভোর রাত ৩ টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ডালিম আহমেদ। তবে আত্মহত্যার কারণ এখনো জানা যায়নি বলে জানান তিনি।

 

সুত্র: সিলেট ভয়েস

 

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000