বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:০৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপ ও সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশনের উদ্দ্যোগে ৬ষ্ঠ ঘরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনবিশ্বনাথের লামাকাজীতে দোয়ার মাধ্যমে ‘ঘোড়া’ প্রতিকের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয় উদ্ভোধনকুমিল্লার গোমতী চরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ব্যবসায়ি গ্রেফতার সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা জরিমানাসিলেটের বিশ্বনাথের লামাকাজীতে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক একাধিক প্রতিষ্টানকে জরিমানাপটুয়াখালীর দুমকিতে ৫০ তম স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্ধোধনআগামীকাল নতুন বেরী ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরামের ২য় গজল সন্ধ্যাঃ আসছেন বুলবুলসুনামগঞ্জের ছাতকের মল্লিকপুর লতিফিয়া ক্বারী সোসাইটির কমিটি গঠনসিলেটের বিশ্বনাথের লামাকাজীতে চেয়ারম্যান ধলা মিয়ার সমর্থনে সৎপুর গ্রামে উঠান বৈঠকবিশ্বনাথের লামাকাজীতে ‘বৈদ্যুতিক পাখা’ প্রতিকের নির্বাচনী প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধনজামালপুরের বকশীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে সহিংসতার ঘটনা নিয়ে এসপির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের বৈঠক

ডেস্ক রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৩২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে বৈঠক করছেন হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ নেতারা।

সোমবার (১৯ এপ্রিল) রাত ১০টার দিকে হেফাজতের ১২ শীর্ষ নেতা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ধানমন্ডির বাসায় ঢোকেন। রাত ১২টার দিকে তারা বেরিয়ে আসেন। তবে বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে কী-না সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসা থেকে বেরিয়ে হেফাজত নেতারা নিজেরা কিছুক্ষণ কথা বলেন। বৈঠকের বিষয়ে জানতে চাইলে হেফাজতের মহাসচিব নূরুল ইসলাম জিহাদি জানান, তিনি অসুস্থ। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন তিনি।

বৈঠক কি ফলপ্রসূ- এই প্রশ্নের উত্তরে গ্রেপ্তার হওয়া হেফাজত নেতা মামুনুল হকের ভাই মাহফুজুল হক বলেন, আলোচনা হয়েছে, তবে আর কিছু বলার নেই। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসার সামনে উপস্থিত কয়েকজন সাংবাদিক হেফাজত নেতাদের কাছে কিছু বলার অনুরোধ জানালেও তারা দ্রুত গাড়িতে উঠে চলে যান। এ সময় আতাউল্লাহ হাফেজ্জীর কাছে বৈঠক বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি হাত নাড়িয়ে বক্তব্য প্রদানে অস্বীকৃতি জানান।

হেফাজতের শীর্ষ নেতারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় যখন ঢোকেন তখন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কয়েকজন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। হেফাজতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান সমকালকে জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে তাদের ১২ জন নেতা অংশ নেন। বৈঠক চলে রাত ১০টা থেকে ১২টা পর্যন্ত।

তিনি বলেন, ‘আমরা গ্রেপ্তার বন্ধের দাবি করেছি। সরকার আমাদের ভুল বুঝেছে- সেটা বলার চেষ্টা করেছি। গত ২৬ মার্চ হেফাজতের কোনো কর্মসূচি ছিল না। কারা সেদিন মিছিল ও ভাংচুর করেছে সেটা তদন্তের দাবি করেছি।’ বৈঠক ফলপ্রসু হয়েছে কি-না জানতে চাইলে জাকারিয়া নোমান বলেন, ‘এটা পরে জানানো হবে।’

বৈঠকে অংশ নেওয়া হেফাজতের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে ছিলেন সংগঠনের নায়েবে আমীর আতাউল্লাহ হাফেজী, হেফাজতের মহাসচিব নূরুল ইসলাম জেহাদী, মামুনুল হকের ভাই বেফাকের মহাসচিব মাহফুজুল হক, অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, হাবিবুল্লাহ সিরাজী প্রমুখ।

এর আগে সোমবার একটি গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে হেফাজতের পাঁচ শীর্ষ নেতা বৈঠক করেন বলে জানা গেছে। হেফাজতের একজন নেতা জানান, সেই বৈঠকের ধারাবাহিকতায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বাসায় সোমবার রাতের বৈঠকটি হয়।

একটি সূত্র জানায়, সরকারের কঠোর অবস্থানের কারণে কোণঠাসা হেফাজতে ইসলামের শীর্ষ নেতারা সমঝোতার চেষ্টা করছেন। তারই অংশ হিসেবে তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করলেন। হেফাজতের নেতারা চাইছেন, তাদের আর কোনো নেতাকর্মীকে যেন গ্রেপ্তার করা না হয়।
বিএইচ/২০এপ্রিল/এএস

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000