মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ফ্রান্সে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনবাকোডিসির পক্ষ থেকে সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে বাড়ি নির্মান ও গবাদিপশু বিতরণদূর্গাপূজা হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন সৈয়দপুর পৌর মেয়েরপরারাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথে যুক্তরাষ্ট্রে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়বকশীগঞ্জে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনআন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে পিএফজির মানববন্ধনওসমানীনগরে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণওসমানীনগরের রাসেল সিলেট ল কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনোনীতইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান -২০২২ জনসচেতনতামৃলক সভাদুর্গাপুজা উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সাইবার সেল ও মনিটরিং সেল গঠন

সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যানকে নিয়ে ফেসবুকে মানহানিকর বক্তব্যের ঘটনার থানায় জিডি

ফারুক আহমদ
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২১ আগস্ট, ২০২১
  • ২৯২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সিলেটের বিশ্বনাথের উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য এসএম নুনু মিয়াকে নিয়ে ‘কুরুচি ও মানহানিকর অশালীন’ বক্তব্য দেয়ায় যুক্তরাজ্য প্রবাসী আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী দায়ের (জিডি) করা হয়েছে। ডায়েরী নং ৯০৮ (তাং ২০.০৮.২১ইং)।

শুক্রবার ২০ আগস্ট রাতে উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া বাদী হয়ে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার লাউতলা গ্রামের মৃত আছান উল্লাহর পুত্র যুক্তরাজ্য প্রবাসী আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে ওই সাধারণ ডায়েরী (জিডি) দায়ের করেন।

নিজের করা জিডিতে উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া উল্লেখ করেছেন, গত বৃহস্পতিবার একটি ফেসবুক পেইজে প্রবাসী আতাউর রহমান একটি সালীশকে কেন্দ্র করে তাকে (নুনু মিয়া) জড়িয়ে কুরুচি ও মানহানিকর অশালীন এবং আক্রমনাক্তক বক্তব্য উপস্থাপন করেন। মনগড়া বানোয়াট এ বক্তব্যের কোন সত্যতা নাই বলে দাবি করেন নুনু মিয়া। বিগত এক বছর আগে প্রবাসী আতাউর রহমান বিশ্বনাথে তার শশুর বাড়ির ব্যাপারে একটি শালিস বৈঠক স্থানীয় খাজাঞ্চী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মধ্যস্থতায় অনুষ্ঠিত হয়। সেই বৈঠকে শালিসগণের কথানুযায়ী এক লক্ষ টাকা তার (নুনু) মাধ্যমে প্রদান করেন প্রবাসী এবং সবার উপস্থিতিতেই তিনি টাকা সমজিয়া নেন। নুনু মিয়া আরও উল্লেখ করেন, তিনি ওই শালিস বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না, এমনকি ওই শালিসের শালিসিয়ান হিসেবেও তাঁর নাম ছিল না। এক বছর পর প্রবাসী একটি স্বার্থন্বেষী মহলের প্ররোচনায় সম্পূর্ণ অসত্য ও আশালীন বক্তব্য, সম্পূর্ণ মানহানিকর ও জিডিটাল নিরাপত্তা আইনে শাস্তিযোগ্য অপরাধ।
প্রবাসীর এ বক্তব্য উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে এবং দলের প্রতিও কটাক্ষ করেছেন ওই প্রবাসী।

উপজেলা চেয়ারম্যান এম এম নুনু মিয়া  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে প্রবাসীর এই বক্তব্য প্রত্যাহারপূর্বক সরিয়ে ফেলার দাবি জানান ও তাঁর বিরুদ্ধে আশালীন ও মানহানিকর বক্তব্যের বিচারও দাবি করেন।

এব্যাপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম নুনু মিয়া জিডি দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে এব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000