বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
সিলেটের বিশ্বনাথে ‘প্রতারণা ও মানহানি’র অভিযোগে আদালতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার মামলানীলফামারীতে ট্রেনের সাথে ইজিবাইক সংঘর্ষে নিহত ৪ আহত ৬ইয়াবাসহ দুই যুবক পটুয়াখালী দুমকিতে গ্রেফতারতরুণ সংগঠক রাজিব আহমদের প্রবাস গমন উপলক্ষে ফাইটার্স ক্লাবের সংবর্ধনা প্রদানসিলেটের বিশ্বনাথে জনকল্যাণ ইয়্যাং সোসাইটির শীতবস্ত্র বিতরণবিশ্বনাথের লামাকাজীতে ২নং ওয়ার্ডে চেয়ারম্যান প্রার্থী আছকিরের উঠান বৈঠকবিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়ানীলফামারীর সৈয়দপুরে ১০০ শয্যা হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স দুইটিই রোগাক্রান্ত, চিকিৎসার উদ্যোগ নেইশাবির ঘটনায় পটুয়াখালীর দুমকিতে ছাত্রদলের প্রতিকী অনশনআন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আর্থিক লেনদেনের ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধের অভিযোগ

সিলেটের ওসমানীনগরে শহীদ মিনারে শিক্ষক ও ঐক্য পরিষদ নেতার হাতাহাতি

ওসমানীনগর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৩০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সিলেট জেলার ওসমানীনগরে বিজয় দিবসে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদনের সময় শিক্ষক ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ নেতার মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।



ফুল দিতে গিয়ে এক জনের পা অন্য জনের পায়ে লাগায় এবং এর প্রতিবাদ করায় দু’জনের মধ্যে কিল ঘুষি লাথি ও গাল মন্দ বিনিময় হয়। এসময় উপস্থিত সাংবাদিক ও রাজনীতিক নেতাদের মধ্যস্থতায় উভয়কে মারামারি থেকে রক্ষা করা হয়।

জানা যায়, আজ ১৬ ডিসেম্বর সকালে উপজেলার তাজপুর ডিগ্রী কলেজ শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোকজন ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করতে আসেন। উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদ মিনারে ধারাবাহিকভাবে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন করেন। এক পর্যায়ে ফুল দিতে আসেন স্থানীয় শিক্ষক সংগঠন নেতৃবৃন্দ ও হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ নেতৃবৃন্দ। তখন ঐক্য পরিষদের সাবেক নেতা বিপুল পুরকায়স্থ’র পা শিক্ষক নেতা অজিত পালের পায়ে লাগে। তাতে দু’জনের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে একজন অপরজনকে গালমন্দ ও কিল ঘুষি মারতে থাকেন।

উপস্থিত সাংবাদিক ও রাজনীতিক নেতাদের মধ্যস্থতায় তাদেরকে মারামারির ঝটলা থেকে পৃথক করা হয়। পরবর্তিতে বিকালে উপজেলা আ’লীগ সভাপতি আতাউর রহমানের কার্যালয়ে বিষয়টি আপোষে নিস্পত্তি হয়।
ওসমানীনগর উপজেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ এর সাবেক নেতা বিপুল পুরকায়স্থ জানান, শহীদ মিনারে ফুল দিতে গিয়ে অনেক লোকের ঝটলা থাকায় হয়তো শরীরের ধাক্কা কারো গায়ে লাগতে পারে। এ নিয়ে শিক্ষক অজিত পাল অশালিন আচরন করেন। এবং আমাকে আঘাত করেন।একজন শিক্ষকের কাছ থেকে মানুষ ভাল কিছু আশা করে। কিন্তু অজিত পাল অনেক নিচু ব্যবহার করেছেন। বিষয়টি স্থানীয় নেতৃবৃন্ধের মধ্যস্থতায় নিস্পত্তি হয়েছে। শিক্ষক অজিত পাল জানান, বিষয়টি আওয়ামীলীগ সভাপতি আতাউর রহমানের কার্যালয়ে শেষ হয়েছে।

এ ব্যাপারে ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আতাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, শহীদ মিনার থেকে আমরা চলে আসার পর দু’জনের মধ্যে একটি ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে। আমরা তাদেরকে ডেকে এনে বিষয়টি সমাধান করে দিয়েছি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000