সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতিওসমানীনগরে বাড়ির উঠান দিয়ে রাস্তা নিতে প্রতিবন্ধি পরিবারে হামলানীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিতছাত্রদল নেতা নয়ন হত্যার প্রতিবাদে সৈয়দপুরে বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশওসমানীনগরে কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণবালাগঞ্জে ফ্রান্স প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সুমন এর পিতৃবিয়োগবকশীগঞ্জের বাঘাডুবি দাখিল মাদ্রাসা সুপারসহ ৬ জন শিক্ষককে বিদায়ী সংবর্ধনাসৈয়দপুর ক্রীড়া সংস্থা চ্যাম্পিয়ন রানার আপ পৌরসভা একাদশ

শ্রীমঙ্গলে এসএসসি পরীক্ষার্থীর রহস্যজনক মৃত্যু

সঞ্জয় মালাকার
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২২
  • ৩৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে সদর ইউনিয়নের শাহীবাগ এলাকার ১০ অক্টোবর বুধবার রেল লাইনের পাশে এক আহত যুবক ফাহাদের মৃত্যু নিয়ে রহস্যে সৃস্টি হয়েছে। ফাহাদের নিহতের ঘটনা নিয়ে এলাকায় তোলপার চলছে। তার শরীরের আঘাত ও ভিন্ন আলামত থেকে পরিবারসহ এলাকার অনেকের দাবী এটা একটি হত্যা।



ঐদিন তাকে শাহীবাগ এলাকার রেল লাইনের পাশে গুরুতর আহত অবস্থায় দেখতে পেয়ে ফায়ার সার্ভিসে খবর দেয় এলাকাবাসী। ফায়ার সার্ভিসের লোক জন উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত ফাহাদ রহমান (১৮) উপজেলার পশ্চিম ভাড়াউড়া গ্রামের শ্রীমঙ্গল সাব-রেজিষ্টার অফিসের মোহরী হাজী ফজলুর রহমান ফজলুর বড় ছেলে। ফাহাদ চলতি বছরে শহরের শাহ মোস্তফা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। ১০ অক্টোবর তার প্র্যাকটিকেল পরীক্ষা ছিল।

নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, ঘটনার রাতে পরিবারের সদস্যদের সাথে রাতের খাবার খেয়ে কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। ভোরের কোন এক সময় পরিবারের কাউকে কিছু না বলে বাসা থেকে বেড়িয়ে যায়। ঐ দিন তার এস এস সি প্রেকট্রিক্যাল পরীক্ষার যাওয়ার সময় হয়ে গেলে তাকে পাওয়া যাচ্ছিল না। তখন শ্রীমঙ্গল হাসপাতাল থেকে ফোন আসে ফাহাদ হাসপাতালে। খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে তাকে মৃত অবস্থায় দেখেন।

এলাকার জনি আলম বলেন, আমি সকাল অনুমানিক সোয়া ৬ টার সময় ঘুম থেকে উঠে আমার বাসার পাশে কিছু লোকের জটলা দেখতে পাই। তখন ঘটনা স্থলে গিয়ে একটি ছেলেকে শ্রীমঙ্গল রেল স্টেশনের ২৮৭/৭ সেকশনের রেল লাইনের পাশে মুমুর্ষু অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে ৯৯৯ এ ফোন করি। পরে ঘটনাটি ফেইসবুকে লাইভ করি যাতে যুবকটির পরিবার দেখে হয়তো চিনে আসতে পারে। খবর পেয়ে শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছে গুরুতর আহত ফাহাদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীমঙ্গল ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আবু তাহের জানান, এলাকার জনি আলম নামের এক ব্যক্তি ঘটনার খবর ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে জানালে সেখান থেকে ফায়ার সার্ভিসকে ফোন করে জানানো হয়। খবর পাবার সাথে-সাথেই ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘটনাস্থল থেকে ফাহাদকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফাহাদকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢাকা সিলেট সুরমা মেইল ট্রেনের চালক জাহিদুল ইসলাম বলেন, আমি ১০ অক্টোবর বুধবার সকাল ৫টা ০৫মিনিটে শ্রীমঙ্গল রেল স্টেশনে ট্রেন নিয়ে প্রবেশ করি। আমার ট্রেনের সাথে কোন মানুষের ধাক্কা লাগেনি। আমার চলন্ত ট্রেনের কোন দূর্ঘটনা ঘটেনি। দূর্ঘটনা ঘটলে আমি স্টেশনে রিপোর্ট করতাম।

শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে সহকারী স্টেশন মাস্টার আব্দুল আজিজ বলেন, নিহতের শরীরের মাথার আঘাত দেখে মনে হয় না এটি ট্রেন দূর্ঘটনা। ট্রনে ধাক্কা মারলে মাথা ফেটে চৌচির হয়ে যেত। লোকটির মাথার সামন দিকে আঘাতের চিহ্ন দেখা যাচ্ছে। এটা ট্রনের আঘাত হতে পারে না। এছাড়া এমন কিছু ঘটলে চালক রিপোর্ট করতো। আমাদের লাইন চেকাররা ও ঘটানা জেনে আমাদেরে রির্পোট করতো।

শ্রীমঙ্গল রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাফিউল ইসলাম পাটোয়ারী জানান, অবস্থার প্রেক্ষিতে এবং এলাকাবাসীর বক্তব্যে ধারণা করা হচ্ছে এটি একটি দুর্ঘটনা। তবে আরো অধিক নিশ্চিত হবার জন্য মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট আসলে প্রকৃত তথ্য নিশ্চিত হওয়া যাবে।

এদিকে কৃতি শিক্ষার্থী ফাহাদ রহমানের মৃত্যুর খবরে পুরো শ্রীমঙ্গলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার মৃত্যুর খবর শহরে প্রচারিত হবার পরপরই হাজার-হাজার মানুষ হাসপাতালে ভিড় করেন। এ সময় তার পরিবারের আহাজারিতে হাসপাতাল এলাকার পরিবেশ ভাড়ি হয়ে ওঠে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000