শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বিমানবন্দরের ৪ মণ চোরাই পেরিমিটার সহ ভ্যান উদ্ধার: মামলা দায়েরসাংসদ শফিক বলেছেন অছিয়ত আলী মাদরাসা প্রতিষ্ঠা থেকে আদর্শ ও দেশপ্রেমিক মানুষ তৈরিতে কাজ করছেচেয়ারম্যান হিরন মিয়া’র মা গুরুতর অসুস্হ:দোয়া কামনাবিশ্ব খাদ্য দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে র‍্যালী ও আলোচনা সভাবিশ্বনাথে বিশ্ব খাদ্য দিবসে পূনর্বাসিত সুবিধাভূগিদের মাঝে সবজি বীজ ও চারা বিতরণকয়েক ঘন্টা পর ইন্টারনেট আবার স্বাভাবিকসাবেক এমপি শফিক চৌধুরীর বিশ্বনাথে বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শনচাউলধনী হাওর প্রসঙ্গ : খুনিচক্রের ফাঁসির দাবিতে গণ বিক্ষোভ অনুষ্টিতবিশ্বনাথে অতুল দে’র পারিবারের পক্ষ থেকে দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে বস্ত্র বিতরণপটুয়াখালী দুমকির পপুলার প্যাথলজী ও ডায়াগনস্টিকের ভুল চিকিৎসার অভিযোগ

শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বিল অনুমোদন

ডেস্ক রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ২৬৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

প্রধানমন্ত্রীর নামে খুলনায় একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের জন্য আইনের খসড়ায় অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় সংসদ।

সোমবার (১ ফেব্রুয়ারি) স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বিলটি সংসদে উত্থাপন করেন, পরে সেটি কণ্ঠভোটে পাস হয়। বিলের উদ্দেশ্য অনুসারে স্নাতকোত্তর চিকিৎসক এবং চিকিৎসা বিষয়ে গবেষক তৈরি করার পাশাপাশি এ অঞ্চলের মেডিকেল কলেজগুলোর শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য খুলনা বিভাগে একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন করা জরুরি।

রাজশাহী, চাটগ্রাম ও সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আইনের সঙ্গে মিল রেখে এই বিলটি তৈরি করা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি প্রস্তাবিত মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর হবেন। খুলনা বিভাগের সব সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল, ডেন্টাল ও নার্সিং কলেজ ও ইনস্টিটিউট এবং মেডিকেল শিক্ষার সঙ্গে সম্পর্কিত অন্যান্য ইনস্টিটিউট এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত থাকবে।
বিলে গবেষণা, উচ্চশিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবার মানসমূহ এবং সুযোগ-সুবিধা সম্প্রসারণে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হয়েছে।বপ্রতিটি বিভাগে একটি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে সরকারের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এর আগে গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর ‘শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা, বিল, ২০২০’ এর খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা। পরে গত ১৯ জানুয়ারি সংসদে এটি উত্থাপন করা হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিলটি উত্থাপন করলে এটিকে আরো যাচাই-বাছাই করার জন্য সংশ্লিষ্ট সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়।
সুত্র:আমার সংবাদ

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000