শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৪৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বকশীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নবাগত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতবিনিময়সৈয়দপুরে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল ইজিবাইক চালকের ছেলে নয়ননীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতিওসমানীনগরে বাড়ির উঠান দিয়ে রাস্তা নিতে প্রতিবন্ধি পরিবারে হামলানীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিতছাত্রদল নেতা নয়ন হত্যার প্রতিবাদে সৈয়দপুরে বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশওসমানীনগরে কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণবালাগঞ্জে ফ্রান্স প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সুমন এর পিতৃবিয়োগ

রুশ অবরুদ্ধতা থেকে মুক্তি পাচ্ছে ইউক্রেনীয় সেনারা

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২
  • ৯৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ইউক্রেনীয় সরকার নিশ্চিত করেছে মারিউপোলের আজভস্টল স্টিল কারখানায় দুই মাসের বেশি সময় ধরে আটকে পড়া হাজার হাজার সেনা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানিয়েছেন মারাত্মক আহত ৫৩ সেনাকে রুশ সমর্থিত বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রিত নোভোয়াজোভস্ক শহরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।



তিনি আরো জানান অন্য আরও ২১১ সেনাকে মানবিক করিডোর ব্যবহার করে আরেক বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত শহর ওলেনিভকায় নেওয়া হয়েছে।

এর আগে রাশিয়া জানায় আহত সেনাদের সরিয়ে নেওয়ার একটি চুক্তিতে পৌঁছানো গেছে।

আটকে থাকা সেনাদের বহনকারী বেশ কয়েকটি বাসকে সোমবার সন্ধ্যায় আজভস্টলের বিশাল শিল্প কারখানা এলাকা ছেড়ে যেতে দেখা যায়। পশ্চিমা বার্তা সংস্থাগুলো বাসগুলো ছেড়ে যেতে দেখার নিশ্চিত করেছে। অন্যদিকে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যমেও ভিডিও ফুটেজ দেখিয়ে বলেছে আহত ইউক্রেনীয় সেনাদের সরে যেতে দেওয়া হয়েছে।

ইউক্রেনের উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানান এই সেনাদের বিনিময়ে আটক থাকা রুশ সেনাদের মুক্তি দেওয়া হবে। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার মধ্যরাতের পর এক ভিডিও বার্তায় ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি জানান, সরিয়ে নেওয়ার এই অভিযানে ইউক্রেনীয় সেনাবাহিনী, গোয়েন্দা এবং আলোচক দলের পাশাপাশি রেড ক্রস এবং জাতিসংঘের প্রতিনিধিরাও যুক্ত ছিলেন।

ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, ‘ইউক্রেনের তার বীরদের জীবিত প্রয়োজন।’

গত মার্চ মাসের শুরুতে অগ্রবর্তী রুশ সেনারা দক্ষিণাঞ্চলের বন্দরনগরী মারিউপোল ঘিরে ফেললে হাজার হাজার ইউক্রেনীয় সেনা-আজভ রেজিমেন্ট, ন্যাশনাল গার্ড, পুলিশ এবং আঞ্চলিক প্রতিরক্ষা ইউনিটের পাশাপাশি বেশ কিছু বেসামরিক মানুষ ওই স্টিল কারখানায় আশ্রয় নেয়।

তবে ওই কারখানার আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কারে এখনও কত জন আটকে রয়েছেন তাৎক্ষণিকভাবে তা জানা যায়নি। পড়ে থাকা মানুষদের রক্ষায় সেনাবাহিনী, গোয়েন্দা, ন্যাশনাল গার্ড এবং সীমান্ত রক্ষাকারী বাহিনী যৌথ তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে বলে উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী হান্না মালিয়ার জানান।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000