শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
শাহজালাল (রঃ) একাডেমির ৫ম শ্রেনীর বিদায় বিদায় অনুষ্ঠান আলোচনা ও দোয়া সভা সমপন্নছাতকে ইউনিয়ন যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনভাড়াটিয়া কর্তৃক সৈয়দপুরে দোকান দখল, মিথ্যে মামলায় হয়রানী ও প্রাণনাশের হুমকির বিচার চায় বৃদ্ধাবকশীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নবাগত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতবিনিময়সৈয়দপুরে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল ইজিবাইক চালকের ছেলে নয়ননীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতিওসমানীনগরে বাড়ির উঠান দিয়ে রাস্তা নিতে প্রতিবন্ধি পরিবারে হামলানীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত

রাজনগরে বাড়ি দখলের জের ধরে দুই বসত ঘরে আগুন

সঞ্জয় মালাকার
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২২ আগস্ট, ২০২২
  • ৭৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজারের রাজনগর উপজেলার পাঁচগাঁও গ্রামে প্রবাসীর বাড়ি দখল করার জের ধরে দুইটি বসতঘর পুড়িয়ে দিয়েছে প্রতিপক্ষ।



শনিবার দিবাগত রাত ২ টায় ওই গ্রামের আপন দুই ভাই আব্দুর রূপ ও প্রবাসী মতিন মিয়ার ২টি বসতঘর পুড়িয়ে দেয় প্রতিবেশী শহীদ মিয়া ও তোয়াহিদ আলীর লোকজন। পরে রাজনগর ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

ক্ষতিগ্রস্ত প্রবাসী মতিন মিয়ার অভিযোগ, পরিকল্পিতভাবেই তাদের ঘরে আগুন লাগানো হয়েছে।

প্রবাসী মতিন মিয়া বলেন, আমি প্রবাসে থাকায় দীর্ঘদিন যাবৎ আমার বাড়ীটি দখল করার জন্য এলাকার শহিদ মিয়া, জাহির আলী, তোয়াহির আলীর লোকজন আমার স্ত্রী সন্তানদেরকে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে । আমি প্রবাস থেকে আসার পর আমার বাড়ীটি তাহাদের নিকট বিক্রী করার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকে। আমি বাড়ি বিক্রীতে অপারগতা প্রকাশ করায় পরিকল্পিতভাবে আমার বসত ঘরের চারপাশে পেট্রোল ঢালিয়া আগুন জ্বালাইয়া দেয়। শহীদ মিয়া ও দুরুধ আলীকে আগুন লাগিয়ে পালিয়ে যেতে দেখেছেন বলেও জানান তিনি।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, প্রবাসী মতিন মিয়ার বাড়ি ক্রয়ের জন্য দীর্ঘদিন থেকে এলাকার শহীদ মিয়ার লোকজন ভয়ভীতি দেখাচ্ছিল। প্রবাসীর বাড়ি ক্রয়ের জন্য শহীদ মিয়ার লোকজন প্রবাসী মতিন মিয়ার ঘর ও তার ভাইয়ের বসত ঘরে আগুর ধরিয়ে দেয়। এতে দুইটি ঘর সম্পূর্ণ পুড়ে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী তাহমিনা বেগম বলেন, রাত দুইটায় আব্দুর রূপ মিয়ার বউয়ের চিল্লা চিৎকার শুনে বের হয়ে দেখি শহীদ মিয়া, জহির আলী, ফয়েজ মিয়াসহ কয়েকজন দৌড়ে পালাচ্ছেন। তখন আব্দুর রূপ ও মতিন মিয়ার ঘরে আগুন জ্বলছিলো। আমি ৯৯৯ কল দিলে ফায়ার সার্ভিস আসিয়া আগুন নিয়ন্ত্রনে করে। আব্দুর রূপ ও তার স্ত্রী সন্তানকে হাসপাতালে পাঠাই।

রাজনগর ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন অফিসার আলী হোসেন জানান, আমরা ৯৯৯ থেকে কল পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনি।

রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিনয় ভূষণ রায় জানান, এখনও লিখিত অভিযোগ পাইনি। রাতে আগুন লাগার পর রাজনগর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করছে। কি কারনে আগুন লাগতে পারে আমরা ফায়ার সার্ভিস থেকে একটা প্রতিবেদন নেবো । থানায় লিখিত অভিযোগ পেলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000