সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৬:৩৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
এনটিভির ২০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে খাবার বিতরণ ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদানবিশ্বনাথে বন্যার্তদের জন্য প্রধানমন্ত্রীর উপহার এান ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করলেন নুনু মিয়ারাজনগরে কৃষক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও কৃষি অফিসারের কার্যালয়ের শুভ উদ্বোধনবিশ্বনাথে থানা পুলিশের উদ্যোগে খাদ্যসামগ্রী বিতরণছাতকে ইমাম মোয়াজ্জিন গণকে খাদ্য সামগ্রী উপহার দিলেন সাহেলবিশ্বনাথে ‘বাংলাদেশ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের’ নগদ অর্থ বিতরণজামালপুরের বকশীগঞ্জে ইউনিয়ন বিএনপির কার্যালয় উদ্বোধনবালাগঞ্জে সালমান আহমেদের পরিবারের পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণবিশ্বনাথে এক শিক্ষককে প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়ায় থানায় সাধারণ ডায়েরীউপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ প্রতিষ্ঠান বকশীগঞ্জের আলহাজ গাজী আমানুজ্জামান মডার্ন কলেজ

রাজনগরে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি,বন্যার কবলে আশ্রয়কেন্দ্র

সঞ্জয় মালাকার , রাজনগর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২
  • ১৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

স্মরন কালের সেরা বন্যা দেখছে বাংলাদেশ। ভাসছে সিলেট, চট্রগ্রাম সহ উত্তর-পূর্বের অনেক জনপদ।



মৌলভীবাজারের রাজনগরে ও বন্যা অতীতের রেকর্ড ভাঙ্গছে।দূর্দশায় দূর্বিশহ জীবন যাপন করছেন বান বাসীরা।

উপজেলার উত্তরভাগ,ফতেপুর,ও টেংরাবাজার ইউনিয়নের অনেক অঞ্চল বন্যা প্লাবিত হয়েছে।
বানবাসী উত্তরভাগ ইউনিয়নের বাসিন্দারা বলেন,আজও পানি ২-৩ আঙ্গুল বৃদ্ধি পেয়েছে।পানি কমার কোনো লক্ষন নাই।আমরা বন্দী অবস্থায় আছি।

১নং উত্তরভাগ ইউনিয়নের ৫টি ও ২নং ফতেপুর ইউনিয়নের ৫টি সহ মোট ১০টি আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নিয়েছেন হাজারো পরিবার।কিন্তু সেই সকল আশ্রয়কেন্দ্রে পৌছায়নি পর্যাপ্ত ত্রান সামগ্রী।পানি বন্দি হয়ে আছেন বন্যার কবল থেকে বাঁচতে ঘর ছাড়া সুনামপুর বিদ্যালয়ের আশ্রয়কেন্দ্রের শরনার্থীরা।নৌকা ছাড়া যোগাযোগ করা যাচ্ছেনা আশ্রয় কেন্দ্রে।

এদিকে ১নং ফতেপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নকুল কুমার দাস বলেন,আমার এলাকায় বন্যা কবলিত ২৫০০টি পরিবার। কিন্তু আমার ইউনিয়নে বরাদ্দ হয়েছে ৬০০পরিবারের জন্যে ৬টন চাল।

একই অবস্থা উত্তরভাগ ইউনিয়নের বন্যার্তদের।ইউ পি সদস্য মোঃ মাসুক বলেন,ওয়ার্ড ভিত্তিক আমাদেরকে ত্রান সামগ্রী বিতরণের জন্যে দেয়া হয়েছে কিন্তু যা পেয়েছি তা প্রয়োজনের তুলনায় স্বল্প।একই কথা বলেন আরেক ইউ পি সদস্য অলি আহমেদ।

জানা যায়,পাঁচদিন যাবত আশ্রয় কেন্দ্রে মানবেতর জীবন যাপন করছেন উত্তরভাগের বানবাসীরা।অথচ এখনো উদ্ভোদন হয়নি বহুল কাঙ্খিত নিরাপদ আশ্রয় কান্দিগাঁও উচ্চ দিব্যালয়ের আশ্রয় কেন্দ্র। এলাকাবাসীদের দাবি, যদি এই আশ্রয় কেন্দ্র উদ্ভোদন হতো তাহলে অনেক মানুষ এবারের বন্যায় ভুক্তভোগী কম হতো।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000