মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ফ্রান্সে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনবাকোডিসির পক্ষ থেকে সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে বাড়ি নির্মান ও গবাদিপশু বিতরণদূর্গাপূজা হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন সৈয়দপুর পৌর মেয়েরপরারাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথে যুক্তরাষ্ট্রে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়বকশীগঞ্জে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনআন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে পিএফজির মানববন্ধনওসমানীনগরে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণওসমানীনগরের রাসেল সিলেট ল কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনোনীতইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান -২০২২ জনসচেতনতামৃলক সভাদুর্গাপুজা উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সাইবার সেল ও মনিটরিং সেল গঠন

যেভাবে খুসখুসে কাশি থেকে মুক্ত থাকবেন

সফিকুল ইসলাম রাজাঃ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২ আগস্ট, ২০২১
  • ২৮২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বর্ষায় বাতাসে জন্ম নেয় ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া। খুসখুসে কাশি, ঠাণ্ডা লাগা প্রায় অনেকেরই লেগে থাকে। এটি আবহাওয়ার পরিবর্তনের কারণে হতে পারে, অথবা যেকোনো রকমের খাদ্য বা পানীয়ের কারণে হতে পারে। দুই ধরনের কাশি আছে, যার চিকিৎসাপদ্ধতিও একে অপরের থেকে আলাদা। শুকনো কাশির জন্য বাড়িতে চিকিৎসা করলে প্রতিকার পাওয়া যায়।

কী কারণে শুষ্ক কাশি হয়?
শুকনো কাশির প্রধান কারণ ব্রঙ্কাইটিস অথবা অ্যালার্জি থেকেও হতে পারে। এর বাইরেও এসিডিটি এবং অ্যাজমার সমস্যার কারণে অনেকের শুষ্ক কাশির সমস্যা হতে পারে। শুকনো কাশির সময় আপনার গলা ব্যথা হতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে, আপনি যদি অ্যাজমার রোগী হন তাহলে আপনাকে একটু বেশি সতর্ক থাকতে হবে।

শুষ্ক কাশির প্রতিকার
শুকনো কাশি থেকে মুক্তি পেতে আপনাকে কিছু জিনিস থেকে দূরে থাকতে হবে এবং কিছু জিনিস দৈনন্দিন রুটিনে রাখতে হবে। তবেই আপনি শিগগিরই শুষ্ক কাশি থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এর জন্য ঠাণ্ডা জিনিস খাওয়া বন্ধ করুন। এটি আপনার গলায় স্বস্তি দেবে। শুষ্ক কাশি থেকে মুক্তি পেতে বেশি করে পানি পান করুন। মসলাযুক্ত খাবার এবং চা এবং কফির কম পান করার চেষ্টা করুন।

চিকিৎসকের পরামর্শ

শিশুদের মধ্যে কাশির সমস্যা খুবই সাধারণ একটি বিষয়। বিশেষ করে রাতে ঘুমানোর সময় কাশি হয় অনেক শিশুর। শ্বাসনালিতে সংক্রমণ থেকে কাশি হতে পারে। যদি আপনার দীর্ঘ সময় ধরে কাশি থাকে, তবে সময় নষ্ট না করে এবং চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। এ ছাড়া প্রয়োজনে আপনার বুকের এক্স-রে বা সিটি স্ক্যান করান।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000