বৃহস্পতিবার, ২৬ মে ২০২২, ০২:২০ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বিশ্বনাথে ‘হাজী তেরা মিয়া ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট’র পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণজামালপুরের বকশীগঞ্জে অটিজম ও নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধিতা বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিতমৌলভীবাজার মুনিয়া নদী থেকে বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধারমৌলভীবাজারের রাজনগরে গ্রীল ভেঙে ঘরে ঢুকে গরু চুরিবিশ্বনাথে কলেজ ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মী আহত : আটক ১বিশ্বনাথের খাজাঞ্চী ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ করলেন শফিক চৌধুরীনীলফামারীর সৈয়দপুরে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কে হত্যার হুমকি প্রতিবাদে ছাত্রদলের বিক্ষোভমৌলভীবাজারের রাজনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় ১জন নিহতবিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়নে বন্যার্তদের মধ্যে অ্যাডভোকেট গিয়াসের চাল বিতরণরাজনগরে সম্পন্ন হলো অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ কর্মশালা

যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক হিসেবে নিয়োগ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ইবনে সিনার

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১১ জুন, ২০২১
  • ২৫০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্টঃ শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ইবনে সিনার যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিজিটিং গবেষক হিসেবে নিয়োগ
কুশিয়ারাবার্তা ডেস্কঃ যুক্তরাষ্ট্রের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিজিটিং গবেষক হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী আবু আলী ইবনে সিনা।

আবু আলী ইবনে সিনা বলেন, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি থেকে ভিজিটিং সায়েন্টিস্ট হিসেবে যোগ দেওয়ার অফার পেয়েছি। কাজ করব পৃথিবীর বিখ্যাত দুই ক্যান্সার ইনস্টিটিউট, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির ডানা ফারবার ক্যান্সার ইনস্টিটিউট এবং কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটির হার্বার্ট আরভিন কম্প্রিহেন্সিভ ক্যান্সার সেন্টারে।

নিজের অনুভূতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনুভূতি অবশ্যই অসাধারণ। সেখানে কাজের মূল উদ্দেশ্য হলো টেন মিনিট ক্যান্সার টেস্টকে সাধারণ মানুষের ব্যবহার উপযোগী করে তোলা। হার্ভার্ড এ সুযোগ পাওয়ায় ক্যান্সার টেস্টটি বাজারে আনার কাজটি ত্বরান্বিত হবে। সেই জন্য আরো ভালো লাগছে।

এর আগে, দশ মিনিটে ক্যান্সার শনাক্তের পদ্ধতি নিয়ে আবু আলী ইবনে সিনার একটি গবেষণা ‘নেচার কমিউনিকেশন্স’ এ প্রকাশিত হওয়ার পর বিবিসি, সিএনএন, গার্ডিয়ান, আল জাজিরাসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোতে ব্যাপক সাড়া ফেলে দেয়।

উল্লেখ্য, শাবিপ্রবি রসায়ন বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষ করে কিছুদিন একটি কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে চাকরিতে যোগদান করেন তিনি। সেখানে স্থায়ী না হয়ে তিনি শাবিপ্রবির বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। তারপর, শিক্ষা ছুটি নিয়ে চলে যান অস্ট্রেলিয়ার কুইন্সল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি করতে।

পিএইচডি করার সময় থেকে তিনি ক্যান্সার গবেষণা শুরু করেন। বর্তমানে একই বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্চ ফেলো হিসেবে ক্যান্সার গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। স্ত্রী সাবিহা সুলতানা এবং ছেলে জাবির ইবনে হাইয়্যানকে নিয়ে তিনি অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে বসবাস করছেন। তার গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের বাবুর হাটে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000