শনিবার, ২০ অগাস্ট ২০২২, ০৬:০৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
নীলফামারীর সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবক দলের বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভাবিশ্বনাথের দশঘরে সড়ক পাকাকরণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন এসএম নুনু মিয়ানীলফামারীর সৈয়দপুরে ১ সন্তানের জনকের লাশ উদ্ধারপটুয়াখালীতে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের ৪২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনস্বাধীনতার ঘোষণাপত্র পাঠকারী এম এ হান্নান সম্পর্কে ভুল তথ্য দিয়ে সমালোচনায় হানিফসৎপুর মাদরাসার ৭৫ বছরপূর্তি অনুষ্ঠান আগামী বছরের ১ লা মার্চনীলফামারীর সৈয়দপুরে অপহরণ চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার, অপহৃত কিশোর উদ্ধাররাজধানীতে ফের প্যাকেজিং কারখানায় আগুননীলফামারীর সৈয়দপুরে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতারসৈয়দপুরের প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষিকা এক মাসের ছুটি নিয়ে এক বছর ধরে আমেরিকায়

বড়লেখায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ১৬টি ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১২ জুলাই, ২০২১
  • ৩০২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোঃইবাদুর রহমান জাকির বড়লেখা প্রতিনিধিঃ অনেক প্রতিক্ষার পর মৌলভীবাজারের বড়লেখায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ১৬টি ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। সোমবার (১২ জুলাই) প্রধান অতিথি হিসেবে মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বড়লেখা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) এমাজ উদ্দিন সরদার উপজেলার উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের ১৬ ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগের উদ্বোধন করেন।

এর মধ্যে ভবানীপুর গ্রামে ৮টি, ভূগা-চান্দপুর গ্রামে ৬টি এবং সায়পুর গ্রামে ২টি পাকা ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়।

এ সময় উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আহমদ জুবায়ের লিটন, ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান সেলিম আহমদ খান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রফিক উদ্দিন আহমদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, বড়লেখা উপজেলায় প্রথম পর্যায়ে নির্মিত প্রধানমন্ত্রীর উপহারের প্রায় ৫০টি ঘরের চাবি উপকারভোগীদের মাঝে হস্তান্তরের প্রায় পাঁচমাস অতিবাহিত হলেও ঘরগুলোতে বিদ্যুৎ ও পানির কোনো ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়নি। বিদ্যুৎ ও পানির ব্যবস্থা না থাকায় ৫০ পরিবারের মধ্যে ৩৪ পরিবার ঘরগুলোতে ওঠেনি। মাত্র ১৬টি পরিবার ঘরে ওঠে। এতে তারা চরম দুর্ভোগে পড়েন।

এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত সংবাদ সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টিগোচর হলে তারা নড়েচড়ে বসেন। এরপরই ঘরগুলোতে বিদ্যুৎ সংযোগের কাজ শুরু হয়। এর মধ্যে সোমবার ১৬ পরিবারে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ায় উপকারভোগীদের মধ্যে বেড়েছে উৎফুল্লতা । বাকিঘরগুলোতে দ্রুত বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পল্লী বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের দুর্যোগ সহনীয় বাসগৃহ নির্মাণ (‘ক’ শ্রেণি) পুনর্বাসন প্রকল্পের আওতায় বড়লেখা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে ৫০টি ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়। এর মধ্যে বড়লেখা সদর ইউনিয়নে ১০টি, উত্তর শাহবাজপুর ইউনিয়নে ১৬টি, দক্ষিণ শাহবাজপুর ইউনিয়নে ৩টি, দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়নে ৩টি এবং দক্ষিণভাগ দক্ষিণ ইউনিয়নে ১৮টি ঘর নির্মাণ করা হয়। একে কটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। চলতি বছরের ২৩ জানুয়ারি উপকারভোগীদের মধ্যে ঘরগুলোর চাবি হস্তান্তর করা হয়।

মৌলভীবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি বড়লেখা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. এমাজ উদ্দিন সরদার বলেন, বড়লেখায় প্রথম ধাপে নির্মিত প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ৫০টি ঘরের মধ্যে ৩৫টিতে পল্লী বিদ্যুৎ সংযোগ দিতে পারবে। কারণ, কাশেমনগর গ্রামের ১৫টি ঘর পিডিবির আওতাধীন এলাকায়, তাই এগুলোতে পল্লীবিদ্যুতের সংযোগ দেওয়া যাবে না। সোমবার ৩৫টির ঘরের মধ্যে ১৬টিতে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে। বাকি ঘরগুলোতে দ্রুত সংযোগ দেওয়া হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000