শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বিশ্বনাথে ৩ শতাধিক প্রতিবন্ধীদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করলেন নুনু মিয়াবেগম খালেদা জিয়া কে হত্যার হুমকির প্রতিবাদে নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিএনপির বিক্ষোভসিলেটে বন্যার্তদের নগদ অর্থ ও ত্রাণ বিতরণ করলেন প্রবাসী কমিউনিটি নেতা শফিক উদ্দিনকুমিল্লার দেবীদ্বার থানার মানবিক অফিসার ইনচার্জ প্রত্যাহারে সাধারণ মানুষের ক্ষোভ প্রকাশবিশ্বনাথে দশঘর ইউনিয়নে বন্যার্তদের ত্রাণ বিতরণ করলেন এসএম নুনু মিয়াওসমানীনগরে ২কোটি টাকা মূল্যের তিনতলা বাসা দখল নিয়ে দু’পক্ষের উত্তেজনাপররাষ্ট্রমন্ত্রী রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সক্রিয় সম্পৃক্ততার আহ্বানবিশ্বনাথে ‘হাজী তেরা মিয়া ডেভেলপমেন্ট ট্রাস্ট’র পক্ষ থেকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণজামালপুরের বকশীগঞ্জে অটিজম ও নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধিতা বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিতমৌলভীবাজার মুনিয়া নদী থেকে বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার

বৃষ্টির পানিতে তলিয়ে গেছে রাজধানীর রাস্তাগুলো , জনভোগান্তি চরমে

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১ জুন, ২০২১
  • ৩১৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্টঃ বৃষ্টিতে রাজধানী জুড়ে তীব্র জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে। ভোর ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত টানা ৩ ঘণ্টা ৮৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। এতে নগরীর বিভিন্ন এলাকা তলিয়ে গেছে। কোনও কোনও সড়কে জমেছে হাঁটুপানি। কোথাও কোথাও ফুটপাত ছাড়িয়ে মানুষের বাসা বাড়িতেও ঢুকে পড়েছে পানি। এতে দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী। বিশেষ করে অফিসগামী মানুষকে বেশি ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

মঙ্গলবার (১ জুন) সকাল থেকে নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে তীব্র জলাবদ্ধতা দেখা গেছে। সকালে রাজারবাগ পুলিশ লাইনের সামনে, মালিবাগ, মৌচাক, মতিঝিল, গুলিস্তান, কাওরান বাজার, ফার্মগেট, মিরপুর, তেজগাঁও, মোহাম্মদপুর, বাড্ডা, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, রামপুরা, পুরান ঢাকার বিভিন্ন এলাকা, খিলক্ষেতসহ বিভিন্ন এলাকার সড়কে পানি জমে জলাবদ্ধতা দেখা দিয়েছে।

এসব এলাকা হয়ে যারা অফিস বা কাজে যোগ দিতে বের হয়েছেন তাদের দুর্ভোগে পড়তে হয়েছে। অনেক কর্মজীবী মানুষকে পানির মধ্যে প্যান্ট হাঁটু পর্যন্ত গুটিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। আবার অনেক মানুষকে পানি ডিঙিয়ে অফিসে পথে যাত্রা করতে দেখা গেছে। পরিবহনের জন্য মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে অনেককে।

প্রতি বছরই জলাবদ্ধতায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় রাজধানীবাসীকে। কিন্তু কার্যত কোনও পদক্ষেপ নেই দুই সিটি করপোরেশনের। অথচ এই খাতে বছরে হাজার কোটি টাকা ব্যয় করে থাকে সংস্থা দুটি। বৃষ্টি হলেই নগরীর অলিগলি ও ছোট পরিসরের রাস্তাগুলোতেও জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। রাজধানীর পানি নিষ্কাশন পথগুলো আবর্জনায় ভরাট হয়ে থাকায় দ্রুত পানি নামতে পারছে না। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা।

সকালে রাজারবাগ, খিলগাঁও রেলগেট, মালিবাগ রেলগেট ও মৌচাকসহ বিভিন্ন এলাকায় অফিসগামী মানুষকে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু তারা পর্যাপ্ত গণপরিবহনও পাচ্ছেন না। ফলে প্রতিটি সিটে যাত্রী পরিবহনের পাশাপাশি দাঁড়িয়েও যাত্রী পরিবহন করতে দেখা গেছে।

বাড্ডার বাসিন্দা আশরাফুল ইসলাম গনমাধ্যমকে বলেন, ‘প্রতিবছর বর্ষার শুরু হলে দুই মেয়র ও মন্ত্রীদের আশ্বাস পেয়ে থাকি। কিন্তু কখনও জলাবদ্ধতার সমস্যা সমাধান হয় না; বরং দিন দিন নদী থেকে সাগরে পরিণত হচ্ছে রাজধানী।
নাসির উদ্দিন নামে একজন এনজিওকর্মী বলেন, ‘সকাল ৯টায় খিলক্ষেত থেকে বের হয়েছি। ধানমন্ডি ৭/এ-তে আসতে দুই ঘণ্টা ২০ মিনিট সময় লেগে গেছে। রাস্তায় পানি, যানজট।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000