বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বিশ্বনাথ উপজেলা আল ইসলাহ’র কমিটি: সভাপতি আখতার আলী সম্পাদক হাবিবজামালপুরের বকশীগঞ্জে দলিল লেখক সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিতদেবীদ্বার পৌর আওয়ামী লীগ নেতা মরহুম হাজী শহীদুল্লাহ খাজার জানাজা ও দাফন সম্পন্নকুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলা মহিলা শ্রমিক লীগের কমিটি ৩বছরের জন্য অনুমোদনদুমকিতে এইচ.এস.সি ও বি.এম পরীক্ষার প্রস্তুতিমূলক সভাফের গাজিপুরের এক গার্মেন্টসে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাকিশোরগঞ্জে ভোটকেন্দ্রে বিজিবি সদস্য নিহতের ঘটনায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধি দলের পরিদর্শনসৈয়দপুরে স্ত্রী হত্যাচেষ্টা মামলায় আ’লীগ নেতা জেল হাজতেবালাগঞ্জের কাশিপুর খালের ভাঙ্গন পরিদর্শন করলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসিটি কর্পোরেশন সহ সিলেটের ৩২টি অফিসের বিরুদ্ধে বেশি অভিযোগ দুদকের গণশুনানিতে

বিশ্বনাথে পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা ধর্মঘটে ভোগান্তিতে সাধারন জনগণ

ফারুক আহমদ
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২২ নভেম্বর, ২০২১
  • ৩০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সারা দেশের ন্যায় সিলেটে ভোর থেকে চলছে পরিবহন ধর্মঘট। পাঁচ দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে শ্রমিকরা সিলেট বিভাগে কর্মবিরতির ডাক দিয়ে বন্ধ রেখেছেন সব ধরনের পরিবহন। হঠাৎ করে পরিবহন ধর্মঘটে বিপাকে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। বিশেষ করে এসএসসি পরীক্ষার্থী, স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীদের পড়তে হয়েছে বিড়ম্বনায়।



সোমবার (২২ নভেম্বর) সকালে সরেজমিনে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী, গোলচন্দ বাজার, প্রিতীগন্জ বাজার, রামপাশা ঘুরে মানুষের দুর্ভুগের দৃশ্য দেখা গেছে। কোনরকম যানবাহন না থাকায় সকল মানুষ পায়ে হেটে চলাচল ছাড়া বিকল্প পাচ্ছেন না। মাঝেমধ্যে রিকশায় চলাচল করলেও মাত্রাতিরিক্ত ভাড়া গুনতে হচ্ছে।

তবে নগর বা হাট বাজার অভ্যন্তরে পায়ে হেটে হলেও কোনরকম গন্তব্যে পৌঁছা গেলেও বিপাকে পড়ছেন কর্মজীবীরা। যারা শহর থেকে বিভিন্ন উপজেলায় গিয়ে অফিস করেন তাদের অসহায়ত্ব দেখা গেছে। সেই সাথে পরীক্ষার্থীরাও রিজার্ভ গাড়ি নিয়েও চলাচল করতে হচ্ছে। এ ক্ষেত্রেও জাগায় জাগায় চালকদের জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে। তবে নিন্ম আয়ের পরিবারের শিক্ষার্থীরা অনেকেই ভোরে বের হয়ে পায়ে হেটে পরীক্ষা কেন্দ্রের দিকে ছুটতে ও দেখা গেছে।

পায়ে হেটে প্রিতীগন্জ বাজার থেকে বিশ্বনাথের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন কাওছার আহমদ নামের এক কর্মজিবী। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ধর্মঘটের নামে কর্মবিরতি দিয়ে জিম্মি করা হয়েছে। কোন গাড়ি নেই। তাছাড়া আজ এসএসসি পরীক্ষা। সবার ত আর সামর্থ নেই ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে যাওয়ার।

ফেডারেশনের সিলেট বিভাগীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জাকারিয়া আহমদের বরাত দিয়ে জানা যায় অনির্দিষ্টকালের পরিবহণ ধর্মঘট পূর্বঘোষিত। গত ৯ নভেম্বর সিলেটের জেলা প্রশাসকের কাছে ৫ দফা দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি দিয়ে বাস্তবায়নের আল্টিমেটাম দেয়া হয়।
তিনি আরো জানান, যেহেতু প্রশাসন থেকে তাদের দাবি বাস্তবায়নে কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি, এজন্য তারা সিলেটে সর্বাত্মক পরিবহণ ধর্মঘট কর্মসূচী পালনের ডাক দিয়েছেন।

তাদের দাবিগুলোঃ
১.সিলেট জেলা বাস, মিনিবাস কোচ-মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের (রেজি নং বি ১৪১৮) নেতাদের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহার।
২. সাধারণ শ্রমিকদের উপর সিলেটের ট্রাফিক পুলিশ ও হাইওয়ে পুলিশের সব ধরণের হয়রানি বন্ধ।
৩. মেয়াদ উত্তীর্ণ শেরপুর সেতু, শেওলা সেতু, লামাকাজী সেতু, ফেঞ্চুগঞ্জ সেতু, ছোয়ারা সেতু, শাহপরান সেতুর টোল আদায় ও লিজ বন্ধ।
৪. বিভিন্ন পৌরসভার নামে সব প্রকার টোল আদায় বন্ধ করা ও ৫. সিলেটের চৌহাট্টাসহ বিভিন্ন স্থানে কার-মাইক্রোবাস, লেগুনা, সিএনজি অটোরিক্সা সহ ছোট গাড়ির জন্য পার্কিং স্থানের ব্যবস্থা করা।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000