বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:১৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মৌলভীবাজারের রাজনগরে গ্রীল ভেঙে ঘরে ঢুকে গরু চুরিবিশ্বনাথে কলেজ ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মী আহত : আটক ১বিশ্বনাথের খাজাঞ্চী ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ করলেন শফিক চৌধুরীনীলফামারীর সৈয়দপুরে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কে হত্যার হুমকি প্রতিবাদে ছাত্রদলের বিক্ষোভমৌলভীবাজারের রাজনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় ১জন নিহতবিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়নে বন্যার্তদের মধ্যে অ্যাডভোকেট গিয়াসের চাল বিতরণরাজনগরে সম্পন্ন হলো অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ কর্মশালাছাতকের মরহুম আপ্তাব আলী তালুকদারের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী আজবালাগঞ্জের গালিমপুর হরুননেছা খানম উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি পদে আউয়াল নির্বাচিতবন্যার্তদের মাঝে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে আর রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের ত্রাণ বিতরণ

বিশ্বনাথে চার দিন ধরে নিখোঁজ ব্যক্তির লাশ মিললো সুরমা নদীতে

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৫ জুলাই, ২০২১
  • ২৪১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ফারুক আহমদ: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী রাজাপুর থেকে নিখোঁজের চার দিন পরে মালেক মিয়া (৬৩) ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
উদ্ধারের সময় লাশটি সুরমা নদীতে উপুর হয়ে ভাসমান ছিল।

রোববার ৪ঠা জুলাই বিশ্বনাথ উপজেলার লামাকাজী ইউনিয়ন’র সুরমা নদীর দক্ষিন পারে আতাপুর’র ডর থেকে লাশটি উদ্ধার করে বিশ্বনাথ থানা পুলিশ।
মালেক মিয়া (৬৩) (বর্তমান ঠিকানা) উপজেলার রাজাপুর গ্রামে। তার পিতার নাম মৃত জয়দুল্লা। তিনি স্হানীয় একটি বাজারে স্ব-মিলে কাজ করতেন।

থানা-পুলিশ স্হানীয় ও নিহতের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়। গত ৩০ জুন বিকাল ৫ ঘটিকার সময় বাড়ী থেকে বের হয়ে আর ফেরেননি মালেক মিয়া।
তার খোঁজ খবর না পাওয়ায় পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় ২ জুলাই একটি সাধারন ডায়েরী (জিডি) করা হয়। ডায়েরী নং ৬৫/ ০২-০৭-২১।

আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকায় সুরমা নদীতে লাশ ভাসমান অবস্থায় দেখতে পান স্থানীয়রা।
পরে স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন। তাৎক্ষনিকভাবে খবর পেয়ে বিশ্বনাথ থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মর্গে প্রেরণ করে।

সুরমা নদী থেকে লাশ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) গাজী আতাউর রহমান জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার লামাকাজী এলাকাস্থ সুরমা নদীতে নৌকার উপর আব্দুল মালেকসহ কয়েকজন জুয়া খেলছিলো।
এসময় গ্রামের লোকজন গরু চোর সন্দেহে চিৎকার করলে গ্রাম ও এলাকাবাসী বেরিয়ে আসলে অন্যরা নদী সাঁতার কেটে পালিয়ে গেলেও আব্দুল মালেক পানিতে তলিয়ে মারা যায়। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। তবে নিহতের শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলে জানান।

নদী থেকো লাশ উত্তোলনের সময় উপস্হিত ছিলেন এডিশনাল এসপি মিয়া মো. আশিস বিন হাসান, তদন্ত কর্মকর্তা রমা প্রসাদ চক্রবর্তী, থানার সেকেন্ড অফিসার অরুপ সাগর, স্হানীয় চেয়ারম্যান কবির হোসেন ধলা মিয়া, এস আই গোপেশ চন্দ্র, ফখরুল ইসলাম, ডিএসপি সবুজ, মেম্বার নুরুজ্জামানসহ এলাকার শতাধিক লোক।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000