মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ১২:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জে ধর্ষণের দায়ে এক শিক্ষক জেল হাজতেনীলফামারীর সৈয়দপুরে রেললাইন থেকে ছাত্রের লাশ উদ্ধারশাহজালাল (রঃ) একাডেমির ৫ম শ্রেনীর বিদায় বিদায় অনুষ্ঠান আলোচনা ও দোয়া সভা সমপন্নছাতকে ইউনিয়ন যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনভাড়াটিয়া কর্তৃক সৈয়দপুরে দোকান দখল, মিথ্যে মামলায় হয়রানী ও প্রাণনাশের হুমকির বিচার চায় বৃদ্ধাবকশীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নবাগত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতবিনিময়সৈয়দপুরে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল ইজিবাইক চালকের ছেলে নয়ননীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতি

বি,এন,পি নেতা ইলিয়াস আলী গুমের ১০ বছর

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২২
  • ১০৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা এম, ইলিয়াস আলী গুমের ১০ বছর পূরণ হলো আজ। ছেলে ফেরার প্রতীক্ষায় আজো প্রহর গুণছেন ইলিয়াস আলীর বৃদ্ধা মা সূর্যবান বিবি, সহধর্মিণী তাহসীনা রুশদীর লুনা ও তার ছেলে-মেয়েরা। কিন্তু টানা ১০ বছর ধরে রহস্যঘেরাই থেকে গেছে ইলিয়াস আলী নিঁখোজের ঘটনা।



ইলিয়াস আলীর সাথে তার গাড়িচালক আনসার আলীরও খোঁজ মেলেনি। ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাতে নিজ বাসায় ফেরার পথে রাজধানীর মহাখালী থেকে গাড়িচালক আনছার আলীসহ নিখোঁজ হন সাবেক এমপি, বিএনপির তৎকালিন সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক সিলেট জেলা সভাপতি এম ইলিয়াস আলী। ওইদিন মধ্যরাতে মহাখালী এলাকা থেকে ইলিয়াস আলীর ব্যবহৃত গাড়িটি উদ্ধার হলেও সন্ধান মেলেনি তাদের দুজনের।

দেখতে দেখতে দিন কিংবা মাস নয়, একে একে পেরিয়েছে ১০ বছর। তবে অপেক্ষার প্রহর এখনো ফুরায়নি। ইলিয়াস আলীর বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর পক্ষ থেকে দেওয়া হয়নি কোনো স্পষ্ট বক্তব্যও। তবে এখনো তার ফিরে আসার ব্যাপারে আশাবাদী তার স্বজনরা। অপেক্ষায় আছেন দলের নেতাকর্মীরা। ইলিয়াস আলীর মা সূর্যবান বিবি এখনো আছেন ছেলের প্রতীক্ষায়। ছেলের জন্য কাঁদতে কাঁদতে তার চোখের পানি অনেকটা শুকিয়ে গেছে।

ইলিয়াস আলী নিখোঁজের পর তাকে অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার দাবিতে দেশব্যাপী গড়ে উঠে কঠোর আন্দোলন। আন্দোলন করতে গিয়ে ইলিয়াসের নির্বাচনী এলাকা বিশ্বনাথে প্রাণ হারান ৩ জন। টানা কর্মসূচী পালন করেছিল কেন্দ্রীয় বিএনপিও। স্বামীকে উদ্ধারের আবেদন জানাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ছুটে গিয়েছিলেন ইলিয়াস পত্নী তাহসিনা রুশদীর লুনাও। গুমের দুই দিন পর তার স্ত্রী তাহমিনা রুশদীর লুনা হাইকোর্টে একটি রিট আবেদন করেন।

তিনি সে সময় অভিযোগ করেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সদস্যরা অবৈধভাবে তার স্বামীকে আটক করেছিল। তখন দলের নেতারাও একই অভিযোগ তুলেছিলেন। ইলিয়াস আলীকে আদালতে হাজির করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর প্রতি হাইকোর্টের নির্দেশ চেয়েছিলেন ইলিয়াস পত্নী লুনা। তার রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কাছে ১০ দিনের মধ্যে ব্যাখ্যা চেয়ে রুল জারি করে বলেছিলেন, ইলিয়াস আলীকে অবৈধভাবে আটক করা হয়নি এ মর্মে সন্তুষ্ট হওয়ার জন্য কেন তাকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেওয়া হবে না। পরে আবেদনকারী বা সরকার রিট আবেদনের শুনানির বিষয়ে কোনো উদ্যোগ আজো পরিলক্ষিত হয়নি।

নিখোঁজ বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলীর সহধর্মিণী তাহসিনা রুশদীর লুনা বলেন, এক এক করে ১০ বছর হয়ে গেল ইলিয়াস আলী নিখোঁজ হলো। আমাদের চোখে যতক্ষণ জল আছে, ততক্ষণ শুধু প্রিয়জনের অপেক্ষায় অশ্রু বিসর্জন করব। সরকারের দারস্থ হয়েছি। কিন্তু কোনো ফল পাইনি। সরকার ইলিয়াস আলীর সন্ধান দিতে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা আল্লাহর আদালতেই বিচার দিলাম। জনতার সরকার প্রতিষ্ঠিত হলে ইলিয়াস গুমের সব রহস্যের উদ্ঘাটন হবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় সিলেট বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন, ‘আমরা বিশ্বাস করি সিলেটবাসীর প্রিয় নেতা এম ইলিয়াস আলী সরকারের গুম নামক কারাগারে আছেন। আমরা অবিলম্বে ইলিয়াস আলীসহ সারা দেশে গুম হওয়া ৫ শতাধিক নেতাকর্মীকে অক্ষত অবস্থায় তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছি।

এদিকে ইলিয়াস আলী গুমের ১০ বছর অতিবাহিত হওয়ায় সন্ধানের দাবীতে পৃথক কর্মসূচী ঘোষণা করেছে সিলেট জেলা বিএনপি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000