শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মঞ্চে বিশৃঙ্খলা থাকায় বিরক্ত হয়ে বক্তৃতা শেষ না করেই নেমে গেলেন এলজিআরডি মন্ত্রীপ্রবাসীদের নিরাপত্তা ও স্বার্থ সংরক্ষণে সরকারের পাশাপাশি সাংবাদিকরাও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেনপবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) পালন বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউনিয়নেভারি বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে নীলফামারীর ২২টি গ্রাম, ৪০০হাজার পরিবার পানি বন্দিমির্জা ফখরুল বলেছেন, পূজামন্ডপে হামলাকে পুঁজি করে সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করছেমাদকাসক্ত যুবককে জেল হাজতে প্রেরণ সৈয়দপুরের ওসি ও বাবা-মায়ের সহায়তায়তালামীযে ইসলামিয়ার পবিত্র ঈদে মীলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালিদক্ষিণঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পুরন লেবুখালীর পায়রা সেতুর মাধ্যমেচোরাই মোটর সাইকেল সহ চোর গ্রেফতার সৈয়দপুরেএম ইলিয়াছ আলীর সন্ধান কামনায় বিশ্বনাথে দোয়া মাহফিল

প্রবাসী স্বজন এম আলী হোসেন সমাজসেবায় এক অনন্য উদাহরণ

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৫ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৭৬৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: (১৫জানুু-২০২১) এম আলী হোসেন সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ৪ নং উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়নের ইলাশ পুর গ্রামের এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন।
স্বশিক্ষিত ও ধার্মিক একজন এম আলী হোসেন এর সমাজ সেবামুলক কার্যক্রম দেখেই প্রমান পাওয়া যায়, শুধু জনপ্রতিনিধিই নয়, একজন সমাজকর্মীও। নিজ এলাকার উন্নয়ন ভাবনায় নিমগ্ন থাকতে পারেন। জনপ্রতিনিধি না হয়েও যে, সমাজ উন্নয়নের জন্য কাজ করা যায় তা আঙ্গুল তুলে দেখিয়ে দিয়েছেন এম আলী হোসেন। তার জনহিতকর সব কর্মকান্ড এখন তার নিজ জন্মস্থান ৪নং উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়ন তথা ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সহ দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে । সমাজসেবার পাশাপাশি কাজ করেন মানুষের অধিকার নিয়ে। কোনো অসহায় ব্যক্তি/পরিবার যাতে ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত না হয়, এ বিষয়ে তিনি সর্বদা সোচ্চার অবস্থানে থাকেন।
২০১৬ সালে পাড়ি জমান প্রিয় মাতৃভূমি থেকে সাড়ে আটহাজার কিলোমিটার দূরের দেশ ফ্রান্স ।
বিলেতের মাটিতে বসে নিজ এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়ন ও দরিদ্র-কর্মহীন-অসহায় লোকজনের খবরাবর এবং সাধ্যমতো তাদের সহযোগীতা করাই যেনো তার নেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে।
বিগত প্রায় ৪ বছরে ও বেশি সময় যাবত নিজ এলাকার দরিদ্র-কর্মহীন-অসহায় মানুষের জীবনমান উন্নয়নে এম আলী হোসেন’র নানা উদ্যোগ এখন সর্বত্র প্রশংসিত।

এছাড়াও ফ্রান্স প্রবাসী এম আলী হোসেন নিজ এলাকার বিভিন্ন উন্নয়নে রাস্তা নির্মান ।
নিজে উন্নয়ন কাজে সম্পৃক্ত থাকার পাশাপাশি বন্ধু-বান্ধব, পাড়া-প্রতিবেশী, আত্মীয়-স্বজনকেও বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজে সহযোগীতা করার জন্য উৎসাহিত করেন।

নিজ গ্রাম ইলাশ পুর পূর্বপাড়া ব্যাপক উন্নয়ন কার্যক্রমকে আরো বেগবান ও গতিশীল করতে তার নিজ উদ্যোগে ২০১৭ সালে ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপ ” নামীয় একটি সংগঠনের যাত্রা শুরু করেন।

এছাড়াও তার জন্মস্থান ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার বহুল প্রচারিত অনলাইন গণমাধ্যম “সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশন কর্তৃক আলোকিত সিলেট অনলাইন পোর্টাল, কুশিয়ারা বার্তা অনলাইন পোর্টাল, টিভি চ্যানেল সহ ” এর সর্বোচ্চ সম্মানীয় পদবী “সম্পাদক মন্ডলীর সাধারণ সম্পাদক ” পদে আসীন থেকে মূলধারার মিডিয়ায়ও তার অনন্য সাধারণ মেধার স্বাক্ষর রেখে চলছেন।

বিগত ৪ বছর ধরে আলী ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের মাধ্যমে বিভিন্নভাবে দেশ ও দশের সমাজের কাজ করে আসছে উপহার দিয়ে যাচ্ছেন। এ বিষয়ে একান্ত আলাপচারিতায় তিনি বলে ২০২১ সালে ভিশন ৩০ গোল্ডেন প্রকল্প নিয়ে এখন কাজ করছে তিনি।

ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা অনলাইন গ্রুপের -২০২১ গোল্ডেন প্রকল্প

ইতিমধ্যেই আর্ত মানবতার কাজ করে বৃহত্তর সিলেটের একটি সক্রিয় প্রবাসী সংগঠন হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে “ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপ”। প্রবাসী সংগঠনটির সকল সদস্যদের সর্বসম্মতিক্রমে দীর্ঘমেয়াদী উদ্যোগ ভিশন-২০৩০ গোল্ডেন প্রকল্পের পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। নতুন এ কর্মপরিকল্পনায় আগামী ২০২১ সালে কি কি কাজ সম্পূর্ণ করা হবে এর একটি পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ প্রকল্পের সম্ভাব্য ব্যয় ধরা হয়েছে ২০ লক্ষ টাকা।

প্রকল্পের পরিকল্পনাগুলো নিম্নরূপ
(১) অসহায় পরিবারকে টিন শেডের একটি বাড়ি তৈরি করে দেওয়া। (২) হতদরিদ্র পরিবারকে ১০টি টিউবওয়েল প্রাদন করা। (৩) দরিদ্র পরিবারকে ১০টি স্যানিটারি বাথরুম তৈরি করে দেওয়া। (৪) একটি কাঁচা সড়ক সংস্কার করা। (৫) বছরব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি। (৬) রামাদ্বান মাসে ইফতার সামগ্রী বিতরণ। (৭) দুই ঈদে ঈদ সামগ্রী বিতরণ।
(৭) বিভিন্ন দুর্যোগকালী সময়ে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ। (৮) গরিব মুমুর্ষ রোগীদের আর্থিক সহযোগীতা প্রদান। (৯) কর্মহীন মানুষদের ৫টি ছাগল বিতরণ। (১০) অসচ্ছল পরিবারকে বিবাহ সহযোগীতা প্রদান। (১১) এতিম ছাত্রদের নিয়ে শিক্ষাসফর।

উল্লেখ্য, ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপ গত ২০১৭ সালে প্রতিষ্ঠা লাভের পর থেকেই ফেঞ্চুগঞ্জের প্রত্যন্ত অঞ্চলে আর্ত মানবতার কাজে নিয়োজিত আছে। বিশেষ করে বিগত কয়েকটি বন্যা ও করোনাভাইরাসে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রবাসী ওই অনলাইন গ্রুপটি মানবতার সেবায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

 

এছাড়াও করোনা নামক বৈশ্বিক এ মহামারীকালে ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের সকল উদ্যোগ প্রশংসার দাবিদার। নীরবে-নিভৃতে দূর্যোগকালীন এই সময়ে অসহায়, দিনমজুর, কর্মহীন মানুষের প্রতি সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে অনন্য নজির সৃষ্টি করেছেন তিনি।

সমাজের আর্তপীড়িত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর বিপরীতে তার চাওয়া-পাওয়া বা কি প্রতিদান চান? জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি একজন প্রবাসী। সমাজসেবা ও অসহায় মানুষের সেবা করাই আমার অন্যতম একটি চাহিদা। অনেকে এই কাজটা চাইলেও করতে পারে না। এই মহামারী করোনায় আরো প্রমান করে দিল এই পৃথিবী কতটা অসহায়, আল্লাহর হুকুম ছাড়া কোনো কিছু হয় না। আমি সৌভাগ্যবান যে মহান আল্লাহ তায়ালা আমাকে এ রহমত ও নিয়ামতটুকু দান করেছেন- আলহামদুলিল্লাহ। এখানে থেকে আমার কিইবা চাওয়া থাকতে পারে! আমার শুধু চাওয়া একটাই- মহান আল্লাহ তায়ালা যেনো সমাজের আর্থপীড়িত মানুষের প্রতি আমার সকল সাহায্য-সহযোগীতাকে কবুল করেন এবং আমার পিতা-মাতা, স্ত্রী-সন্তান সহ আত্মীয়-স্বজন ও আমাকে আল্লাহপাক দুনিয়া ও আখেরাতের সফলতা দান করেন- আমিন। আমৃত্যু যেনো আমি জনসেবায় নিয়োজিত থাকতে পারি- আমার চাওয়া শুধু এটুকুই।

একজন এম আলী হোসেন আমাদের প্রেরণার উৎস, একটি বাতিঘর, একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমাদেরকে ছায়া দিয়েছেন, দিচ্ছেন এবং দিবেন।
আমরা “আলোকিত সিলেট ও সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশন পরিবার থেকে আমাদের অভিভাবকের সকল মহতি কাজে গর্বিত। আমাদের প্রত্যাশা- আমরা আমাদের এ বাতিঘর থেকে আলো পেয়ে যাবো আজীবন, এ প্রেরণার উৎস থেকে প্রেরণা পেয়ে যাবো আজীবন।
আমরা “কুশিয়ারা বার্তা ” পরিবার আমাদের মহৎপ্রাণ এ অভিভাবকের সর্বাঙ্গীণ সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000