মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১০:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
নীলফামারীর সৈয়দপুরে ১০০ শয্যা হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স দুইটিই রোগাক্রান্ত, চিকিৎসার উদ্যোগ নেইশাবির ঘটনায় পটুয়াখালীর দুমকিতে ছাত্রদলের প্রতিকী অনশনআন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আর্থিক লেনদেনের ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধের অভিযোগবিশ্বনাথের লামাকাজীতে ‘ঘোড়া’ প্রতিকের নির্বাচনী মিছিল ও সভাদুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পটুয়াখালীতে বহুযাত্রী আহতসিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া’র মা গুরুতর অসুস্হ, দোয়ার আরজিবিশ্বনাথে নির্বাচনী আচরণবিধি অবহিতকরণ ও মতবিনিময় সভাসিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভাকরোনায় আক্রান্ত ছাতকের ইউএনওসিলেটের বিশ্বনাথে টমটম চালককে চুরিকাঘাত করে গাড়ী ও মোবাইল ফোন ছিনতাই

পটুয়াখালীর বাউফলে উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা , শোক দিবসের ব্যানার ছেঁড়ার অভিযোগে

মোঃমিজানুর রহমান,পটুয়াখালী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ১৪ আগস্ট, ২০২১
  • ১১৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বাউফলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকির শোকাবহ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ স্বপরিবারের নিহতদের ছবি সম্বলিত ব্যানার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগে বাউফল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বগা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মালেক মীর বাদী হয়ে পটুয়াখালীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

এজাহারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়াশীলীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার ও তার ছেলে বগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহমুদ হাসান সহ ৬ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে নথিভুক্ত করে তদন্তে জন্য বাউফল থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।
মামলার বাদী ও এজাহার সূত্রে জানাযায়, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের নিহত সদস্যদের ছবি সম্বলিত ব্যানার টানানোর জন্য উপজেলার বগা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মালেক মীররের নেতৃত্বে দলীয় কয়েক নেতা কর্মীদের নিয়ে গত সোমবার দুপুরে বগা সোনালী ব্যাংকের সামনে যাই। তখন উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মোতালেব হাওলাদার ও তার ছেলে বগা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহামুদ হাসান সহ তাদের অনুসারী কয়েক যুবককে নিয়ে আমাদের ওই ব্যানার টানাতে নিষেদ করে । এ সময় তারা প্রতিবাদ করেলে তাদেরকে মারধর করে হাত থেকে ব্যানার কেড়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলেন। এ ঘটনার পর বগা ফেরিঘাট এলাকায় ফের আরেকটি ব্যানার নিয়ে গেলে সেখানেও তারা একইভাবে ব্যানার ছিঁড়ে ফেলেন ও মারধর করে।

উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকির শোকাবহ ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব সহ তাদের স্বপরিবারের নিহতদের ছবি সম্বলিত ব্যানার ছিঁড়ে ফেলায় বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের প্রতি অবমাননা করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান বলেন, আমি নৌকা প্রতীক নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছি। আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অংশ। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে দলীয় ভাবে আমাকে কোণঠাসা করে রাখার জন্য স্থানীয় এমপি আ.স.ম ফিরোজের অপ কৌশল হিসেবে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে।
বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) মোঃ আল মামুন বলেন, বিজ্ঞ আদলতের নির্দেশ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000