শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:০১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বকশীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নবাগত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতবিনিময়সৈয়দপুরে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল ইজিবাইক চালকের ছেলে নয়ননীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতিওসমানীনগরে বাড়ির উঠান দিয়ে রাস্তা নিতে প্রতিবন্ধি পরিবারে হামলানীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিতছাত্রদল নেতা নয়ন হত্যার প্রতিবাদে সৈয়দপুরে বিএনপি বিক্ষোভ সমাবেশওসমানীনগরে কুইজ প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণবালাগঞ্জে ফ্রান্স প্রবাসী কমিউনিটি নেতা সুমন এর পিতৃবিয়োগ

নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিএনপি’র বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মোঃ জাকির হোসেন, নীলফামারি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

জ্বালানী তেলসহ নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি, বিদ্যুতের লোডশেডিংয়ের প্রতিবাদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসেবে নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌর বিএনপি’র উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।



মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) বিকাল ৫ টায় শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়কে দলীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এই সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, প্রধান অতিথি সৈয়দপুর জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আব্দুল গফুর সরকার,বিশেষ বক্তা জেলা বিএনপি’র সদস্য সচিব শাহিন আকতার শাহিন, যুগ্ম আহ্বায়ক শওকত হায়াত শাহ, শফিকুল ্ইসলাম জনি।

পৌর বিএনপি’র আহ্বায়ক শেখ বাবলূর সভাপতিত্বে সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহ্বায়ক জিয়াউল হক জিয়া, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক তারিক আজিজ, স্বেচ্ছাসেবকদলের সভাপতি এরশাদ হোসেন পাপ্পু, সাধারণ সম্পাদক এম এ পারভেজ লিটন, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম বাবু, পৌর ছাত্রদলের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, কৃষকদলের সভাপতি মাজাহারুল ইসলাম বসুনিয়া মিজু, সাধারণ সম্পাদক সাদেদুজ্জামান সরকার দিনার, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক রুপা বেগম প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, অবিলম্বে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতি রোধ করতে ব্যবস্থা নেয়া হোক। আর জনগণকে স্টিম রোলার চালিয়ে পর্যুদস্ত করা যাবেনা। তারা এখন জেগে উঠেছে এবং মাঠে নেমেছে। তাই বিএনপি তথা জনগণের দাবির প্রেক্ষিতে দ্রুত বিদ্যুতের লোডশেডিং বন্ধ করে নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ নিশ্চিত করতে হবে। নয়তো ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে অবাধ নির্বাচন দিয়ে জনগণের সরকারকে ক্ষমতায় বসানোর সুযোগ দেয়া হোক। তা না হলে জনরোষে চরম ধোলাই খেয়ে ক্ষমতা ছাড়তে হবে এবং দেশ ছেড়ে পালানোর সুযোগও পাবেনা।

কারণ এ সরকার জনস্বার্থ বিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশকে অস্থিতিশীলতায় নিমজ্জিত করেছে। সবক্ষেত্রেই ব্যর্থ এ সরকার। দিনের ভোট রাতে করে আবার কোন প্রকার ভোট ছাড়াই জোর করে ক্ষমতায় এসে তারা লুটপাটের রাজত্ব কায়েম করেছে। দেশকে তারা দেউলিয়া করে নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত। ভারতের তাবেদারী করে এখনও তারা ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। তাদের এ খায়েস স্বাধীন বাংলার জনগণ কখনই পূরণ করতে দিবেনা। তাই গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000