শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
মঞ্চে বিশৃঙ্খলা থাকায় বিরক্ত হয়ে বক্তৃতা শেষ না করেই নেমে গেলেন এলজিআরডি মন্ত্রীপ্রবাসীদের নিরাপত্তা ও স্বার্থ সংরক্ষণে সরকারের পাশাপাশি সাংবাদিকরাও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেনপবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) পালন বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউনিয়নেভারি বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে নীলফামারীর ২২টি গ্রাম, ৪০০হাজার পরিবার পানি বন্দিমির্জা ফখরুল বলেছেন, পূজামন্ডপে হামলাকে পুঁজি করে সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করছেমাদকাসক্ত যুবককে জেল হাজতে প্রেরণ সৈয়দপুরের ওসি ও বাবা-মায়ের সহায়তায়তালামীযে ইসলামিয়ার পবিত্র ঈদে মীলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালিদক্ষিণঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পুরন লেবুখালীর পায়রা সেতুর মাধ্যমেচোরাই মোটর সাইকেল সহ চোর গ্রেফতার সৈয়দপুরেএম ইলিয়াছ আলীর সন্ধান কামনায় বিশ্বনাথে দোয়া মাহফিল

নানা ঘটনায় আলোচনায় তালেবান, আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের এক মাসে

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণের এক মাসে নানা ঘটনায় আলোচনায় তালেবান।



মন্ত্রীপরিষদ গঠন করতে না পারা, নারী অধিকার নিয়ে বিক্ষোভ, সাংবাদিক নির্যাতন থেকে শুরু করে সবশেষ ক্ষমতা নিয়ে কোন্দল সবই ঘটেছে এই ৩০ দিনে। আফগানিস্তানে গেল এক মাসে তালেবান কার্যক্রম নিয়ে বিস্তারিত।
এক মাসের তালেবানি শাসনে যা হলো আফগানিস্তানে

দুই দশক পর গেল ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এদিন তালেবানের ভয়ে দেশত্যাগে মরিয়া সাধারণ আফগানরা ভিড় করেন কাবুল বিমানবন্দরে। বিমানের চাকায় উঠে কেউবা কাঁটাতারের বেড়া পার হয়ে পালানোর সময় ঘটে হতাহতের ঘটনাও।

আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে তালেবানরা তাদের বিজয় দাবি করে ১৭ আগস্ট। নিয়ন্ত্রণ নিলেও বিভিন্ন প্রদেশে তালেবানবিরোধী বিক্ষোভ চলতেই থাকে দেশটিতে। ১৮ আগস্টে জালালাবাদে তালেবানবিরোধী বিক্ষোভে নিহত হন তিনজন।

দেশটিতে ক্রমেই অর্থনৈতিক সংকটের খবর সামনে আসতে থাকে। এরমধ্যেই হাজি মোহাম্মদ ইদ্রিসকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর করার খবর আসে ২৩ আগস্ট। বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি আফগানিস্তানে খাদ্যসংকটের কথা জানায় এরপরদিনই।

কাবুল বিমানবন্দরের কাছে আত্মঘাতী বোমা হামলায় ১৩ মার্কিন সেনাসহ ২০০ জনের বেশি নিহত হওয়ার দিনটি ছিল ২৬আগস্ট। আর মার্কিন সামরিক বাহিনী আইএস সদস্যকে লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালায় এরপরদিন।

৩১ আগস্টের মধ্যে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর থেকেই আফগানিস্তান দখলে নিতে মরিয়া ছিল তালেবান। মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ড আফগানিস্তান থেকে সেই সেনা প্রত্যাহার করে নেয় ৩০ আগস্টে।

এদিকে পানশির নিয়ন্ত্রণে বিরোধীরা চেষ্টা করলেও তালেবান সদস্যরা পানশির উপত্যকা নিয়ন্ত্রণের দাবি করে। কাবুল বিমানবন্দর স্থানীয় সেবার জন্য আবার চালু হয় ৪ সেপ্টেম্বরে। এরমধ্যেই সরকার গঠনের তোড়জোড় চলতে থাকে দেশটিতে।

সব জল্পনা-কল্পনা ছাপিয়ে তালেবান অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ঘোষণা করে ৭ সেপ্টেম্বর। এরপর একে একে মন্ত্রীপরিষদ গঠন হয় দেশটিতে। মন্ত্রীপরিষদে নারীসদস্য না থাকায় এর জের ধরে নারীরা বিক্ষোভ করে কাবুলসহ বিভিন্ন দেশে।

সেখান থেকে সাংবাদিকরা বিক্ষোভের ফুটেজ সংগ্রহ করতে গেলে প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে নিপীড়নের ঘটনাও ঘটেছে। তবে এখনও শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়নি দেশটিতে।এদিকে, ৯ সেপ্টেম্বর তালেবান সরকারের অধীনে প্রথম আন্তর্জাতিক ফ্লাইট কাবুল ছাড়ে।

১৩ সেপ্টেম্বর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় আফগানিস্তানকে শতকোটি মার্কিন ডলার সাহায্যের প্রতিশ্রুতি দেয়। আর ১৪ সেপ্টেম্বর দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় কান্দাহার শহরেও হাজারো আফগান নাগরিক বিক্ষোভ করেছেন।

সবশেষ আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে সদ্যঘোষিত তালেবান সরকারের গঠন নিয়ে সংগঠনটির নেতাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়েছে। তবে গেল এক মাসে এসেছে শিক্ষা ব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন, হয়নি নারী অধিকার প্রতিষ্ঠা এমনকি এখনও বিশ্ব সম্প্রদায়ের কাছ থেকে স্বীকৃতি মেলেনি তালেবানের।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000