সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৬:৩৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সিটি কর্পোরেশন সহ সিলেটের ৩২টি অফিসের বিরুদ্ধে বেশি অভিযোগ দুদকের গণশুনানিতেসিলেট জেলার ৩টি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হলেন যারাখাজাঞ্চী ইউপি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রীতিগঞ্জ বাজারে স্হাপনের দাবিতে বিশ্বনাথে সভাভোট স্থগিত: কিশোরগঞ্জে কেন্দ্রে ঢুকে ভাঙ্চুর অগ্গিসংযোগ ব্যালট বাক্স ছিনতাই আহত-৩০স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ সমাবেশ পটুয়াখালীর দুমকিতেনীলফামারীর সৈয়দপুরে ইজিবাইকের চাপায় বৃদ্ধ নিহতকুমিল্লার দেবীদ্বার সরকারি হাসপাতাল পরিদর্শন করেন দেবীদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসকাল হলেই সিলেট বিভাগের ৭৭টি ইউনিয়নে ভোট যুদ্ধসেমিনার করলো এবিসি ইংলিশ ইনষ্টিটিউট বিশ্বনাথেউপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া বিশ্বনাথে শীত বস্ত্র বিতরণ করেছেন

তদন্ত কমিটির দাবী ছাতকে নারী কাউন্সিলর কাকলির বিরুদ্ধে ৬২লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত

ডেস্ক রিপোর্ট
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সুনামগঞ্জ ছাতক পৌরসভার মহিলা কাউন্সিলার তাসলিমা জান্নাত কাকলির বিরুদ্ধে ক্ষমতাবলে এলাকায় চাদাঁবাজীর মাধ্যমে ড্রাইবার শ্রমিকদের সংগঠনের কাছ থেকে ৬২ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ সাজাঁনো ও মিথ্যা বলে দাবী করেছেন তদন্তে যাওয়া সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।



গত ১১সেপ্টেম্বর শনিবার সুনামগঞ্জ জেলা শাখার শ্রমিক সংগঠনের ৫ সদস্য গঠিত একটি তদন্ত কমিটির সদস্যরা সরেজমিনে ছাতক তদন্ত করে সংবাদকর্মীদের জানান ছাতক পৌরসভার ৪,৫,ও ৬নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলার তাসলিমা জান্নাত কাকলীর উপর আনিত অভিযোগ মিথ্যা ও ষড়যন্ত মূলক বলে দাবী করেন তারা।

সুত্রে যানাযায় গত ৪ সেপ্টেম্বর সুনামগঞ্জ জেলা সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিক ইউনিয়ন, রেজি নং-১৯২৬ এর সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবরে ছাতক শিববাড়ী সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিকদের নাম ব্যাবহার করে একটি লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়। এবং ৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ১টি পত্রিকায় ও অনলাইনে (ছাতকের নারী কাউন্সিলর কাকলির ক্ষমতার অপব্যবহার-চাঁদাবাজী ৬২ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ) শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ হয়। সংবাদটি জেলা শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের নজরে আসলে জেলা সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিক ইউনিয়ন,রেজি নং-১৯২৬ এর পক্ষ থেকে সরে জমিনে ৫সদস্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে অভিযোগের সত্যতা যাচাই করার জন্য ছাতকের শিববাড়ী শ্রমিকবৃন্দের কার্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে প্রকাশ্যে সকল ড্রাইভার শ্রমিকদের উপস্থিতিতে যাচাই বাচাই করেন তদন্ত কমিটির সদস্যরা।

এসময় অভিযোগকারী ড্রাইভার্স রাসেল তাদের আসার খবর পেয়ে লুকিয়ে পড়েন এবং নারী কাউন্সিলর কাকলী সরেজমিনে তদন্ত কমিটির সামনে উপস্থিত হন । ছাতক শিববাড়ী সিএনজি চালিত অটোরিক্সা ,মিশুক ও টেক্সিকার ড্রাইভার সংগঠনের অফিস কার্যালয়ে সকল সদস্যদের উপস্থিতে কাকলী কর্তৃক ৬২লাখ টাকা আতœসাধ এর অভিযোগ তদন্ত করেন জেলা তদন্ত কমিটি।

দীর্ঘ কয়েক ঘন্টা তদন্ত করে এবং যাচাই বাচাই করে প্রমাণীত হয় নারী কাউন্সিলার কাকলীর উপর আনিত সকল অভিযোগ সাজাঁনো ও মিথ্যা, বানোয়াট এবং ষড়যন্ত্রমূলক। সমাজে তাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এবং নারী কাউন্সিলর কাকলীর জনপ্রিয়তা নষ্ট করত্যে তার মানহানি ঘটানোর জন্যই একটি কুচক্রী মহলের সাজাঁনো বানোয়াট মিথ্যা অভিযোগ দেওয়া হয়েছে এমনটি প্রমাণিত হয় তদন্ত কমিটির কাছে।
এসময় কমিটির সদস্যরা কাকলীর উপর মিথ্যা অভিযোগ ও সংবাদ প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তদন্ত কমিটির ৫সদস্যরা হলেন সুনামগঞ্জ জেলা সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিক ইউনিয়ন,রেজি নং-১৯২৬ এর”জেলা শাখার সহ-সভাপতি বাহার মিয়া, কোষাধক্য মো: আল আমিন, সদস্য মো: আপেল মাহমুদ, চান মিয়া, জামাল মিয়া।

তদন্তকালে উপস্থিত ছিলেন সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিক ইউনিয়ন,রেজি নং-১৯২৬(১) এর” ছাতক শিববাড়ী সংগঠনের সকল ড্রাইভার ও শ্রমিকবৃন্দ। এছাড়াও ভবিষৎতে শ্রমিকদের নিয়ে কোন কাল্পনিক এবং মিথ্যা ষড়যন্ত মুলক কার্যক্রমে না জড়ানোর জন্য সকল ড্রাইভার্স শ্রমিকদের প্রতি অনুরোধ জানান জেলা সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ জেলা সিএনজি চালিত হিউম্যান-হুইলার ড্রাইভার্স শ্রমিক ইউনিয়ন,রেজি নং-১৯২৬ এর”জেলা শাখার সহ-সভাপতি বাহার মিয়া, কোষাধক্য মো: আল আমিন, সদস্য মো: আপেল মাহমুদ, চান মিয়া, জামাল মিয়া জানান আমরা ছাতক পৌরসভার এই মহিলা কাকলীর বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে এর কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি। তার জনপ্রিয়তায় ঈষান্বিত হয়ে তার বিরুদ্ধে মান সম্মান নষ্ট করার জন্য এমন একটি মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছিল।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000