শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দুপক্ষের গোলাগুলিতে দিল্লির আদালতকক্ষে নিহত ৪আগামীকাল ফেঞ্চুগঞ্জের কটালপুরে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্নয়ডাঃ বদরুল জয়নাল ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্টের আলোচনা সভা বালাগঞ্জে অনুষ্ঠিতসামাজিক মাধ্যমে তোলপাড়, লেবুখালী পায়রা সেতুতে মাত্রাতিরিক্ত টোলউপজেলা পরিষদের সাধারণ সভা অনুষ্টিত সিলেটের বিশ্বনাথেসিলেটের বিশ্বনাথে আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা সম্পন্নঅসুস্হ জিল্লু মিয়াকে চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করলো বিশ্বনাথ ওয়ান পাউন্ড হসপিটালদুমকি সরকারি জনতা কলেজের ছাত্রদের বেঞ্চে বসাকে কেন্দ্র করে মারামারি আহত ০১কলেজছাত্রী তানিয়া ধর্ষণ ও হত্যা: আপীলেও খুনীদের ফাঁসি বহালনালা খাল বিল অবৈধ জালের দখলে, সৈয়দপুরে হারিয়ে যাচ্ছে দেশী প্রজাতির মাছ

ঢিলেঢালা লকডাউন পালিত বিশ্বনাথের লামাকাজীতে

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২৪ জুলাই, ২০২১
  • ৬৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ফারুক আহমদঃ করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দেশব্যাপী ঈদ পরবর্তী কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেছে সরকার।

শুক্রবার ২৩ জুলাই ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া লকডাউনের গতকাল ছিলো প্রথম দিন। যার ফলে গতকাল থেকে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জনসমাগম, গণ পরিবহণ বন্ধ, নিত্য পণ্যের দোকানপাট ব্যতীত সকল কিছু বন্ধ থাকার কথা থাকলেও লকডাউনের প্রথম দিনের চেয়ে দ্বিতীয় দিন (আজ শনিবার) ২৪ জুলাই বিশ্বনাথের লামাকাজী এলাকা ঘুরে দেখা গেছে তার ভিন্ন চিত্র।
সরকারি ঘোষণায় লকডাউন থাকলেও তা মানছেন না কেউ। লামাকাজীর অনেক গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ঘুরে দেখা গেছে ঢিলেঢালা ভাবেই চলছে ঈদ পরবর্তী দ্বিতীয় দিনের লকডাউন। কারো মধ্যে নেই স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। লকডাউনের বিধি নিষেধ সম্পর্কে নেই কারো ধারণা। এমনকি সড়কে অবাধে চলাচল করছে সিএনজি অটোরিকশা-মাইক্রোবাস।

এদিকে দ্বিতীয় দিনেও বিশ্বনাথ থানার পুলিশের একাধিক টিম মাঠে থাকলেও মানুষের মধ্যে সচেতনতা ছিল না। ছিল না মুখে মাস্কও। অনেকেই চায়ের দোকানগুলো দিয়েছেন আড্ডা।
তাছাড়া, সিএনজি চালিত অটোরিকশা সড়কে চলাচল বন্ধ করার কথা থাকলেও অবাধে চার পাঁচজন যাত্রি নিয়ে চলতে দেখা যায়। পাশাপাশি অতিরিক্ত ভাড়া নেয়ার অভিযোগও করেছেন অনেকে।

অফিস খোলা রেখে গণপরিবহন বন্ধ ঘোষণার সেই সুযোগে সড়কজুড়ে বিকল্প পরিবহনের ছড়াছড়ি দেখা গেছে। সবমিলিয়ে সরকার ঘোষিত লকডাউনের প্রথম দিনের চেয়ে দ্বিতীয় দিন অনেকটাই বলতে গেলে স্বাভাবিক ই ছিল বিশ্বনাথের লামাকাজী এলাকার গাড়ি চলাচল।

উল্লেখ্য: প্রতিদিনই কোভিড-১৯ সংক্রমণের নতুন নতুন রেকর্ড ভাঙছে। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুর মিছিলও। গেল ফেব্রুয়ারিতে দুই শতাংশের ঘরে থাকা সংক্রমণের হার লাফিয়ে বাড়তে বাড়তে তা ছাড়িয়ে গেছে ২৩ শতাংশের উপরে। করোনার ধাক্কায় যখন জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনা ভেঙে পড়ার উপক্রম তখন বছর ঘুরে আবারো লকডাউনে বাংলাদেশ। গেল দু সপ্তাহ লকডাউন শেষ হতে না হতেই পবিত্র ঈদুল আযহার পরই ফের লকডাউনে গোটা দেশ।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000