সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান বিভাগের সিনিয়র সচিবের দুমকি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরিদর্শনজায়েদ আহমদ চৌধুরী বলেছেন, সৎ ও মেধাবী হওয়ার সাথে সাথে উত্তম চরিত্র গঠন করতে হবে তালামিয কর্মীদের—প্রতিবছরই নেওয়া লাগতে পারে করোনার টিকাএকাধিক মামলার আসামী মাদক ব্যবসায়ী রাশেল মিয়া ওরফে সুমন গ্রেফতারমুজতবা হাসান চৌধুরী নুমান বলেছেন একটি আদর্শ সমাজ গঠনে এক দল পরিশুদ্ধ মানুষ প্রয়োজনবিশ্ব নদী দিবস উপলক্ষে বিশ্বনাথের মাকুন্দা নদীতে নৌ-যাত্রা৩ সপ্তাহ যাওয়ার ৩ তিন কোটি টাকার রাস্তায় ফাটলউত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপের বাংলাদেশ সমন্বয় কমিটির পক্ষ থেকে সাইদুল ইসলাম মিনুরকে সংবর্ধনা প্রধানবিদ্যালয়ের ভবন উদ্ভোধন উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলচেতনানাশক খাইয়ে পটুয়াখালীতে তাবলীগ জামাত সদস্যদের মালামাল লুট

টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে স্পেনকে হাড়িয়ে অলিম্পিকের গোল্ড মেডেল তুলে নিলো ব্রাজিল

স্টাফ রিপোর্টার
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৫৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালে স্পেনকে হাড়িয়ে অলিম্পিকের গোল্ড মেডেল নিলো ব্রাজিল।
ব্রাজিলের এবারের অলিম্পিক দলটাকে আপনি কোন শব্দ দ্বারা সজ্ঞায়িত করবেন? টোকিও অলিম্পিক ফাইনালে স্পেনের বিপক্ষে ২-১ গোলের জয়ের মধ্যে দিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো অলিম্পিক গোল্ড মেডেল নিজেদের কাছে রেখে দিলো ব্রাজিল। ব্রাজিলের পক্ষে দুটি গোল করেন কুনহা এবং ম্যালকম।

ম্যাচের শুরু থেকেই দুই দল খেলেছে গোছানো ফুটবল। তবে প্রথম দিকের কার্যকরী আক্রমণগুলো এসেছে ব্রাজিলের কাছ থেকেই। ফলাফলটাও তারা পেয়ে যায় খুব দ্রুতই। ম্যাচের ৩৮ মিনিটে কুনহার আদায় করা পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হন রিচার্লিসন। ফলে এগিয়ে যাওয়ার সহজ সুযোগ হাত ছাড়া করে ব্রাজিল। তবে এই হতাশা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি ব্রাজিল শিবিরে। ম্যাচের ৪১ মিনিটে দানি আলভেজের বাড়ানো বল থেকে দারুণ ভলিতে গোল করে দলকে ১-০ গোলে এগিয়ে নেন ইনজুরি থেকে ফেরা কুনহা এবং এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় ব্রাজিল।
বিরতি থেকে ফিরেই আক্রমণের হার বাড়িয়ে দেয়া স্পেন। তবে কাউন্টার এ্যাটাক থেকে গোল করার সহজ কয়েকটি সুযোগ মিস করেন রিচার্লিসন। রিচার্লিসনের ভাগ্য সহায় না থাকলেও ব্রাজিলের ভাগ্য ব্রাজিলের সাথেই ছিলো এবং স্পেনের দুটি শট পোস্টে প্রতিহত হয়। স্পেনের ভাগ্য মুখ তুলে তাকায় ম্যাচের ৬১ মিনিটে। দারুণ এক দলীয় আক্রমণ থেকে সুন্দর একটা গোল করে স্পেনকে সমতায় ফেরান ওয়েরজাবাল।
স্পেন ম্যাচে ফেরার পর দুই দলই আবারও গোলের প্রচেষ্টা চালায় কিন্তু নির্ধারিত সময়ে আর কোনো গোল না হওয়ায় খেলা গড়ায় অতিরিক্ত সময়ে। অতিরিক্ত সময়ের প্রথমার্ধে দুই দল ভালো খেললেও আসেনি গোল। তবে দ্বিতীয়ার্ধেই ব্রাজিল পেয়ে যায় সেই কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা। ম্যাচের ১০৮ মিনিটে নিজের অর্ধে বল পান পুরো টুর্নামেন্টজুড়ে দারুণ খেলা এন্টোনি। সেখান থেকে গতি বাড়িয়ে তিনি বল বাড়ান সাব হিসেবে খেলতে নামা ম্যালকমের দিকে এবং গতি ঝড়ে একজন ডিফেন্ডারকে পরাভূত করে দারুণ ফিনিশংয়ে দলের জয় নির্ধারণকারী গোলটি করেন সেই ম্যালকম। এরপর স্পেন ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করলেও ব্রাজিলের ডিফেন্ডারদের দারুণ প্রচেষ্টায় স্পেনিসরা আর ফিরতে পারেনি ম্যাচে, ফলে নিশ্চিত হয় সেলেসাওদের গোল্ড মেডেল।

ব্রাজিলের এই দলটি শুরু থেকেই দারুণ ছন্দময় ফুটবল উপহার দিয়ে ভক্তদের মন জয় করে নিয়েছে এবং তারই পূর্নতা পেয়েছে এই গোল মেডেল জয়। দানি আলভেজ থেকে শুরু করে রেইনার জেসুস – প্রত্যেকেই

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000