বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৫০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
রাজনগরের জোড়া খুনের ৫আসামী গ্রেফতারবকশীগঞ্জে বিনামূল্যে সার ও মাসকালাই বীজ বিতরণরাজনগরের সোনাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ম্যানজিং কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হলেন সাংবাদিক আব্দুল হাকিম রাজসৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে আল্ট্রা সনোগ্রাম মেশিন থাকলেও সেবা থেকে বঞ্চিত রোগীরাবিশ্বনাথ পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে সিভি জমা দিলেন ১০ আ’লীগ নেতাবিশ্বনাথ পৌর নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী মো. দবির মিয়া সকলের দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেনসিলেট-সুনামগঞ্জ মহা সরক দূর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ২শান্তিগঞ্জে জামায়াতের পক্ষ থেকে নতুন ঘর প্রদানরাজনগরে জমি সংক্রান্ত বিরোধে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ২ জন নিহত,আহত ৪চরগরবদি চরাঞ্চলে লাঠিয়াল বাহিনীর তান্ডব, ৫ একর জমির রোপা আমনের ক্ষেত বিনস্ট

জমি নিয়ে বিরোধে হত্যা চেষ্টায় সৈয়দপুরে ৩ জন গুরুতর আহত, জড়িতদের বিচার দাবী

মোঃজাকির হোসেন,নীলফামারী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২৭০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নীলফামারীর সৈয়দপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবী করেন ভুক্তভোগীরা।

তারা জানান, গত ১১ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় মিস্ত্রিপাড়া এলাকায় এ হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটে। প্রতিপক্ষের পরিকল্পিত হামলায় ৩ জন গুরুতরভাবে আহত হয়েছে। আহত নুসরাত জাহান ও মোছাঃ সাগুপ্তা ইয়াসমিন প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় ও শাকিল আদনান টিপু গুরুতর আহত অবস্থায় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি আছে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

সেই অভিযাগ সূত্রে জানা যায়, মিস্ত্রিপাড়া মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায় মৃত সুলতানের স্ত্রী মৃত জুলেখা খাতুনের কবলাকৃত ৬ শতক জমি রয়েছে। যার দাগ নং- সিএস ৩২৮৯, এসএ- ৩৩১৭, বিএস- ৪৫৫৫। খতিয়ান নং- সিএস- ১৭৪৩, এসএ- ২১০৫, বিএস- ২১৪৫। মৃত জুলেখা খাতুনের একমাত্র অংশিদার মেয়ে মোছাঃ মোসাররত খাতুন।

উল্লেখিত জমিতে মৌখিকভাবে বসবাস করে আসছে জুলেখার সতিনের ছেলে মোঃ শাকিল ও মোঃ কামরান। ইতিপূর্বে তাদের বাড়ী ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য বারবার বলার পরও কোন কর্ণপাত করেনি। বরং জোর করেই সেখানে বসবাস করত। মোসাররত খাতুন ঐ জমিতে বাউন্ডারী ওয়ালের নির্মান কাজ করে। চাকরীসূত্রে ঢাকায় থাকা শাকিল ১১ নভেম্বর ভোরে ফিরে এসেই সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।

ওই দিন মোসাররত খাতুনসহ তার সন্তানরা সকাল ১১ টা ৩০ মিনিটে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের কাছে দেওয়াল ভাঙ্গার কারণ জানতে চাইলে তারা মারমুখি আচরণ করে ও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। প্রতিবাদ করায় শাকিল, কামরান, সাবানা, ওয়ায়েস, নিঝুম, সোহাগ মিলে দেশি অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারী মারডাং করে এবং পরনের কাপড় ছিড়ে শ্লীলতাহানি করে।

হত্যার উদ্দেশ্যে গলা টিপে ধরলে টিপু ছাড়াতে গেলে তাকেও দেশিও অস্ত্র দিয়ে মারডাং করে মাথায় আঘাতে রক্তাক্ত হলে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে শাকিলগং সরে যায়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। গুরুতর অবস্থায় টিপুকে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তিকরানো হয়। নুসরাত ও সাগুপ্তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ফজলে রাব্বী জানায়, বিবাদীদের নামে নারী শিশুর মামলা রয়েছে। ঢাকাতে শাকিলের নামে মামলা রয়েছে এবং সে পলাতক রয়েছে। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000