বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:২৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
ফেঞ্চুগঞ্জ উত্তর কুশিয়ারা আন্তর্জাতিক অনলাইন গ্রুপ ও সিলেট মিডিয়া কর্পোরেশনের উদ্দ্যোগে ৬ষ্ঠ ঘরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনবিশ্বনাথের লামাকাজীতে দোয়ার মাধ্যমে ‘ঘোড়া’ প্রতিকের প্রধান নির্বাচনী কার্যালয় উদ্ভোধনকুমিল্লার গোমতী চরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ব্যবসায়ি গ্রেফতার সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা জরিমানাসিলেটের বিশ্বনাথের লামাকাজীতে ভ্রাম্যমান আদালত কর্তৃক একাধিক প্রতিষ্টানকে জরিমানাপটুয়াখালীর দুমকিতে ৫০ তম স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্ধোধনআগামীকাল নতুন বেরী ইসলামী সাংস্কৃতিক ফোরামের ২য় গজল সন্ধ্যাঃ আসছেন বুলবুলসুনামগঞ্জের ছাতকের মল্লিকপুর লতিফিয়া ক্বারী সোসাইটির কমিটি গঠনসিলেটের বিশ্বনাথের লামাকাজীতে চেয়ারম্যান ধলা মিয়ার সমর্থনে সৎপুর গ্রামে উঠান বৈঠকবিশ্বনাথের লামাকাজীতে ‘বৈদ্যুতিক পাখা’ প্রতিকের নির্বাচনী প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধনজামালপুরের বকশীগঞ্জে ইউপি নির্বাচনে সহিংসতার ঘটনা নিয়ে এসপির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

জমি নিয়ে বিরোধে হত্যা চেষ্টায় সৈয়দপুরে ৩ জন গুরুতর আহত, জড়িতদের বিচার দাবী

মোঃজাকির হোসেন,নীলফামারী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ২০৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

নীলফামারীর সৈয়দপুরে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শহরের একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবী করেন ভুক্তভোগীরা।

তারা জানান, গত ১১ সেপ্টেম্বর শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় মিস্ত্রিপাড়া এলাকায় এ হত্যাচেষ্টার ঘটনা ঘটে। প্রতিপক্ষের পরিকল্পিত হামলায় ৩ জন গুরুতরভাবে আহত হয়েছে। আহত নুসরাত জাহান ও মোছাঃ সাগুপ্তা ইয়াসমিন প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় ও শাকিল আদনান টিপু গুরুতর আহত অবস্থায় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি আছে। এ ব্যাপারে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

সেই অভিযাগ সূত্রে জানা যায়, মিস্ত্রিপাড়া মাদ্রাসা সংলগ্ন এলাকায় মৃত সুলতানের স্ত্রী মৃত জুলেখা খাতুনের কবলাকৃত ৬ শতক জমি রয়েছে। যার দাগ নং- সিএস ৩২৮৯, এসএ- ৩৩১৭, বিএস- ৪৫৫৫। খতিয়ান নং- সিএস- ১৭৪৩, এসএ- ২১০৫, বিএস- ২১৪৫। মৃত জুলেখা খাতুনের একমাত্র অংশিদার মেয়ে মোছাঃ মোসাররত খাতুন।

উল্লেখিত জমিতে মৌখিকভাবে বসবাস করে আসছে জুলেখার সতিনের ছেলে মোঃ শাকিল ও মোঃ কামরান। ইতিপূর্বে তাদের বাড়ী ছেড়ে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য বারবার বলার পরও কোন কর্ণপাত করেনি। বরং জোর করেই সেখানে বসবাস করত। মোসাররত খাতুন ঐ জমিতে বাউন্ডারী ওয়ালের নির্মান কাজ করে। চাকরীসূত্রে ঢাকায় থাকা শাকিল ১১ নভেম্বর ভোরে ফিরে এসেই সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়।

ওই দিন মোসাররত খাতুনসহ তার সন্তানরা সকাল ১১ টা ৩০ মিনিটে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের কাছে দেওয়াল ভাঙ্গার কারণ জানতে চাইলে তারা মারমুখি আচরণ করে ও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। প্রতিবাদ করায় শাকিল, কামরান, সাবানা, ওয়ায়েস, নিঝুম, সোহাগ মিলে দেশি অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারী মারডাং করে এবং পরনের কাপড় ছিড়ে শ্লীলতাহানি করে।

হত্যার উদ্দেশ্যে গলা টিপে ধরলে টিপু ছাড়াতে গেলে তাকেও দেশিও অস্ত্র দিয়ে মারডাং করে মাথায় আঘাতে রক্তাক্ত হলে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে শাকিলগং সরে যায়। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়। গুরুতর অবস্থায় টিপুকে স্থানীয় ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তিকরানো হয়। নুসরাত ও সাগুপ্তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

ফজলে রাব্বী জানায়, বিবাদীদের নামে নারী শিশুর মামলা রয়েছে। ঢাকাতে শাকিলের নামে মামলা রয়েছে এবং সে পলাতক রয়েছে। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000