শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
প্রবাসীদের নিরাপত্তা ও স্বার্থ সংরক্ষণে সরকারের পাশাপাশি সাংবাদিকরাও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারেনপবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (স.) পালন বিশ্বনাথের লামাকাজী ইউনিয়নেভারি বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে নীলফামারীর ২২টি গ্রাম, ৪০০হাজার পরিবার পানি বন্দিমির্জা ফখরুল বলেছেন, পূজামন্ডপে হামলাকে পুঁজি করে সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করছেমাদকাসক্ত যুবককে জেল হাজতে প্রেরণ সৈয়দপুরের ওসি ও বাবা-মায়ের সহায়তায়তালামীযে ইসলামিয়ার পবিত্র ঈদে মীলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালিদক্ষিণঞ্চলের মানুষের স্বপ্নের পুরন লেবুখালীর পায়রা সেতুর মাধ্যমেচোরাই মোটর সাইকেল সহ চোর গ্রেফতার সৈয়দপুরেএম ইলিয়াছ আলীর সন্ধান কামনায় বিশ্বনাথে দোয়া মাহফিলবিশ্বনাথে এমএ খান সেতুর টুল আদায় সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে সভা

চাঁদা দিতে না পারায় ইরানের ভোটাধিকার স্থগিত করেছে জাতিসংঘ

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
  • ১১২ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্টঃ বার্ষিক চাঁদা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ইরানসহ চারটি আফ্রিকান দেশের সাধারণ পরিষদে ভোটাধিকার স্থগিত করেছে জাতিসংঘ। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরান। তেহরানের দাবি, এই সিদ্ধান্ত চরম অযৌক্তিক এবং চাঁদা দিতে না পারার জন্য দায়ী বিশ্বজুড়ে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলনে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা।

জাতিসংঘ সনদের ১৯ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুসারে, যেসব দেশ দুই বছর জাতিসংঘকে বার্ষিক চাঁদা দিতে ব্যর্থ হবে, সাধারণ পরিষদে তাদের ভোটের অধিকার বাতিল হবে। এই কারণে ইরান, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, কমোরোস, সাও তোমে এন্ড প্রিনসিপ ও সোমালিয়ার ভোটের অধিকার বাতিল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস এক চিঠিতে সাধারণ পরিষদের প্রেসিডেন্টকে জানিয়েছেন, ইরানসহ এই দেশগুলো জাতিসংঘ সনদের ১৮ নম্বর অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করেছে।

গুতেরেসের মুখপাত্র স্টেফানি দুজারিক জানিয়েছেন, যে কোনও দেশ বার্ষিক চাঁদা প্রদানের দুই বছরের সময়সীমা পার করে ফেললে এমন চিঠি পাঠানো স্বাভাবিক ঘটনা।

এর আগে ২০২০ সালের শুরুতে ভেনেজুয়েলা, ইয়েমেন ও লেবাননও সাময়িক সময়ের জন্য ভোটাধিকার হারিয়েছিল।

মহাসচিব চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, ইরানকে ভোটের অধিকার ফিরে পেতে হলে এক কোটি ৬২ লাখ ৫১ হাজার ডলার পরিশোধ করতে হবে।

এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরান। দেশটির দাবি, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে বিভিন্ন দেশে আটকে থাকা অর্থ সংগ্রহ করতে পারছে না ইরান। ফলে জাতিসংঘের চাঁদা দিতে পারেনি তারা।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, ১৯৩ সদস্যের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ইরানের ভোট দেওয়ার অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। অথচ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরান খাদ্য ও জরুরি ওষুধপত্র কিনতে পারছে না- এই বিষয়টি উপেক্ষা করে চলেছে জাতিসংঘ।

টুইটারে এক পোস্টে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কাগজে-কলমে জাতিসংঘ ইরানকে তার ভোট দেওয়ার অধিকার থেকে বঞ্চিত করলো।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খতিব জাদেহ জানিয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ব্যাংক থেকে জাতিসংঘের চাঁদা প্রদানে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিয়েছে। তিনি বলেন, শিগগিরই বকেয়া চাঁদা পরিশোধ করা হবে।

সূত্র: নিউ ইয়র্ক টাইমস ও পার্স টুডে

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000