বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১২:১৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মৌলভীবাজারের রাজনগরে গ্রীল ভেঙে ঘরে ঢুকে গরু চুরিবিশ্বনাথে কলেজ ছাত্রলীগের ৫ নেতাকর্মী আহত : আটক ১বিশ্বনাথের খাজাঞ্চী ইউনিয়নে ত্রাণ বিতরণ করলেন শফিক চৌধুরীনীলফামারীর সৈয়দপুরে বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া কে হত্যার হুমকি প্রতিবাদে ছাত্রদলের বিক্ষোভমৌলভীবাজারের রাজনগরে সড়ক দূর্ঘটনায় ১জন নিহতবিশ্বনাথের রামপাশা ইউনিয়নে বন্যার্তদের মধ্যে অ্যাডভোকেট গিয়াসের চাল বিতরণরাজনগরে সম্পন্ন হলো অনলাইন ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ কর্মশালাছাতকের মরহুম আপ্তাব আলী তালুকদারের ২য় মৃত্যু বার্ষিকী আজবালাগঞ্জের গালিমপুর হরুননেছা খানম উচ্চ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি পদে আউয়াল নির্বাচিতবন্যার্তদের মাঝে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জে আর রাহমান এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের ত্রাণ বিতরণ

চাঁদা দিতে না পারায় ইরানের ভোটাধিকার স্থগিত করেছে জাতিসংঘ

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
  • ২২৪ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ডেস্ক রিপোর্টঃ বার্ষিক চাঁদা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় ইরানসহ চারটি আফ্রিকান দেশের সাধারণ পরিষদে ভোটাধিকার স্থগিত করেছে জাতিসংঘ। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরান। তেহরানের দাবি, এই সিদ্ধান্ত চরম অযৌক্তিক এবং চাঁদা দিতে না পারার জন্য দায়ী বিশ্বজুড়ে ব্যাংক থেকে টাকা উত্তোলনে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা।

জাতিসংঘ সনদের ১৯ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুসারে, যেসব দেশ দুই বছর জাতিসংঘকে বার্ষিক চাঁদা দিতে ব্যর্থ হবে, সাধারণ পরিষদে তাদের ভোটের অধিকার বাতিল হবে। এই কারণে ইরান, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক, কমোরোস, সাও তোমে এন্ড প্রিনসিপ ও সোমালিয়ার ভোটের অধিকার বাতিল হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তনিও গুতেরেস এক চিঠিতে সাধারণ পরিষদের প্রেসিডেন্টকে জানিয়েছেন, ইরানসহ এই দেশগুলো জাতিসংঘ সনদের ১৮ নম্বর অনুচ্ছেদ লঙ্ঘন করেছে।

গুতেরেসের মুখপাত্র স্টেফানি দুজারিক জানিয়েছেন, যে কোনও দেশ বার্ষিক চাঁদা প্রদানের দুই বছরের সময়সীমা পার করে ফেললে এমন চিঠি পাঠানো স্বাভাবিক ঘটনা।

এর আগে ২০২০ সালের শুরুতে ভেনেজুয়েলা, ইয়েমেন ও লেবাননও সাময়িক সময়ের জন্য ভোটাধিকার হারিয়েছিল।

মহাসচিব চিঠিতে উল্লেখ করেছেন, ইরানকে ভোটের অধিকার ফিরে পেতে হলে এক কোটি ৬২ লাখ ৫১ হাজার ডলার পরিশোধ করতে হবে।

এই সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরান। দেশটির দাবি, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কারণে বিভিন্ন দেশে আটকে থাকা অর্থ সংগ্রহ করতে পারছে না ইরান। ফলে জাতিসংঘের চাঁদা দিতে পারেনি তারা।

ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাভেদ জারিফ বলেছেন, ১৯৩ সদস্যের জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে ইরানের ভোট দেওয়ার অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। অথচ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরান খাদ্য ও জরুরি ওষুধপত্র কিনতে পারছে না- এই বিষয়টি উপেক্ষা করে চলেছে জাতিসংঘ।

টুইটারে এক পোস্টে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কাগজে-কলমে জাতিসংঘ ইরানকে তার ভোট দেওয়ার অধিকার থেকে বঞ্চিত করলো।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খতিব জাদেহ জানিয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার একটি ব্যাংক থেকে জাতিসংঘের চাঁদা প্রদানে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয় অনুমোদন দিয়েছে। তিনি বলেন, শিগগিরই বকেয়া চাঁদা পরিশোধ করা হবে।

সূত্র: নিউ ইয়র্ক টাইমস ও পার্স টুডে

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000