সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সিটি কর্পোরেশন সহ সিলেটের ৩২টি অফিসের বিরুদ্ধে বেশি অভিযোগ দুদকের গণশুনানিতেসিলেট জেলার ৩টি উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান হলেন যারাখাজাঞ্চী ইউপি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স প্রীতিগঞ্জ বাজারে স্হাপনের দাবিতে বিশ্বনাথে সভাভোট স্থগিত: কিশোরগঞ্জে কেন্দ্রে ঢুকে ভাঙ্চুর অগ্গিসংযোগ ব্যালট বাক্স ছিনতাই আহত-৩০স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ সমাবেশ পটুয়াখালীর দুমকিতেনীলফামারীর সৈয়দপুরে ইজিবাইকের চাপায় বৃদ্ধ নিহতকুমিল্লার দেবীদ্বার সরকারি হাসপাতাল পরিদর্শন করেন দেবীদ্বার উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদসকাল হলেই সিলেট বিভাগের ৭৭টি ইউনিয়নে ভোট যুদ্ধসেমিনার করলো এবিসি ইংলিশ ইনষ্টিটিউট বিশ্বনাথেউপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া বিশ্বনাথে শীত বস্ত্র বিতরণ করেছেন

খালের পেটে বিলীন হয়ে যাচ্ছে রাস্তা পটুয়াখালীর দুমকিতে, চলাচলে দুর্ভোগ

মোঃমিজানুর রহমান, পটুয়াখালী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৬৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর দুমকিতে জেলা পরিষদ ও এলজিইডির ঠেলাঠেলিতে সংস্কারবিহীন লেবুখালী ভাড়ানি খালের পূর্ব পাড়ের রাস্তাটি খালের পেটে চলে যাচ্ছে। লেবুখালী ব্রিজ থেকে ইউনিয়ন ভূমি (তহশিল) অফিস হয়ে লেবুখালী সরকারি হাবিবুল্লাহ উচ্চ বিদ্যালয় পর্যন্ত অত্যন্ত জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটির কয়েকটি পয়েন্টে ভেঙে খালের পেটে চলে যাওয়ায় জন চলাচলে চরম দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে।

বিশেষত খালপারের শতাধিক পরিবার, তহশিল অফিসের লোকজন, লেবুখালী সরকারি হাবিবুল্লাহ উচ্চবিদ্যালয়ের শত শত শিশু-কিশোর শিক্ষার্থীসহ ওই ইউনিয়নের নিত্য চলাচলকারী হাজার হাজার মানুষের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ২০০৭ সালের প্রলয়ংকরি ঘূর্ণিঝড় সিডর-পরবর্তী সময়ে পটুয়াখালী জেলা পরিষদের অর্থায়নে লেবুখালী ভাড়ানি খালের পূর্ব পাড়ের রাস্তাটি নির্মাণ করা হয়। পরবর্তী সময়ে আয়লা, নারগিস, আম্পান, ইয়াসসহ বেশ কয়েকটি ঘূর্ণিঝড়-জলোচ্ছ্বাসসহ প্রাকৃতিক দুর্যোগে রাস্তাটি ক্ষতিগ্রস্ত হলেও সংস্কার করা হয়নি। জেলা পরিষদের অর্থায়নে নির্মিত হওয়ায় এ রাস্তাটিতে এলজিইডির পক্ষ থেকে সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না। ফলে দুই দপ্তরের ঠেলাঠেলিতে সংস্কারবিহীন জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি ভাড়ানি খালের ভাঙনে ক্রমে নিশ্চিহ্ন হতে চলছে।
এলাকাবাসীর অভিযোগ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা প্রতিটি নির্বাচনের পূর্বে প্রতিশ্রুতি দিলেও তা কখনও বাস্তবায়ন হয়নি। সরেজমিনে পরিদর্শনকালে বুধবার বিকালে দেখা যায়, এক কিলোমিটার সড়কের অন্তত ৪-৫টি পয়েন্টে ২০-২৫ ফুট রাস্তার প্রায় অর্ধেকাংশ খালে বিলীন হয়ে গেছে এবং বাকি অংশটুকুও বিলীন হওয়ার পথে। এছাড়াও খালপাড়ের কোথাও কোথাও জোয়ারের প্রভাবে রাস্তার নিচে সুড়ঙ্গ হয়ে পানি জোয়ার-ভাটায় পানি ওঠা-নামা করায় চরম ঝুঁকিতে রয়েছে এ ব্যাপারে স্থানীয় মেম্বার ও লেবুখালী ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল, চেয়ারম্যান আব্দুল সালাম ডাক্তার কে জিজ্ঞাসা করলে বলেন যে এটা প্রক্রিয়াধীন অচিরেই হয়ে যাবে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000