শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:১২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
শাহজালাল (রঃ) একাডেমির ৫ম শ্রেনীর বিদায় বিদায় অনুষ্ঠান আলোচনা ও দোয়া সভা সমপন্নছাতকে ইউনিয়ন যুবলীগের ওয়ার্ড কমিটি গঠনভাড়াটিয়া কর্তৃক সৈয়দপুরে দোকান দখল, মিথ্যে মামলায় হয়রানী ও প্রাণনাশের হুমকির বিচার চায় বৃদ্ধাবকশীগঞ্জে সাংবাদিকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের নবাগত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মতবিনিময়সৈয়দপুরে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পেল ইজিবাইক চালকের ছেলে নয়ননীলফামারীর সৈয়দপুর ট্রেনে কাটা পড়ে যুবকের শরীর তিন খন্ডদুমকিতে আর্জেন্টিনা সমর্থকদের আনন্দ শোভাযাত্রানীলফামারীর সৈয়দপুরে ৫ টি দোকান আগুনে পুড়ে ছাই, ২০ লাখ টাকার ক্ষতিওসমানীনগরে বাড়ির উঠান দিয়ে রাস্তা নিতে প্রতিবন্ধি পরিবারে হামলানীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা ওপেন হাউস ডে অনুষ্ঠিত

কুমিল্লার গোমতী চরে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ৩ ব্যবসায়ি গ্রেফতার সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা জরিমানা

শাহ সাহিদ উদ্দিন, দেবীদ্বার, কুমিল্লা প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১২৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

কুমিল্লার দেবীদ্বার গোমতী নদীর চরে মাটি বহনকারী ট্রাক্টর আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত; এসময় কাটার দায়ে ৩ ব্যক্তিকে ২০১০ সালের ৪ ধারায় বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইনে, গ্রেফতার ও অনাদায়ে সাড়ে তিন লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযুক্তরা জরিমানার টাকা নগদ পরিশোধ করে ছাড়া পান।



মঙ্গলবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আশিক উন-নবী তালুকদার’র নেতৃত্বে ওই অভিযান চলে। এসময় পুলিশের একটি দলও উপস্থিত ছিলেন।

অভিযুক্ত ব্যাক্তিরা হলেন, চরবাকর গ্রামের ময়নাল হোসেন’র পুত্র সোহাগকে ১ লক্ষ টাকা, বজলুর রহমানের পুত্র আব্দুল মজিদকে ১ লক্ষ টাকা, কবির হোসেন’র পুত্র শরীফকে ১লক্ষ ৫০ হাজার টাকাসহ ৩ জন থেকে মোট ৩লক্ষ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

এসময় ঘটনাস্থলে মাটি বহনকারী একটি ট্রাক্টরকে ধাওয়া করলে চালক ট্রাক্টর ফেলে পালিয়ে যায়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আশিক উন-নবী তালুকদার’র নির্দেশে ট্রাক্টরটি আগুনে পুড়িয়ে দেয়া হয়।
ভ্রাম্যমান আদালতের তালিকায় ট্রাক্টর মালিক অজ্ঞাত দেখানো হলেও স্থানীয়রা জানান, ট্রাক্টর মালিক চরবাকর গ্রামের মৃত; খোকন মিয়ার ছেলে জামাল মিয়া।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, অবৈধভাবে গোমতী ভেরীবাঁধ সংলগ্ন চরের মাটিকাটা এবং নদী থেকে এলাকার একাধিক সিন্ডিকেট ড্রেজার মেসিন দিয়ে বালি উত্তোলনের কারনে এলাকার সড়কের যেমন বেহাল অবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে, তেমনি এলাকার বাড়ী-ঘরগুলো বালিতে আচ্ছন্ন হয়ে শিশু ও বৃদ্ধরা শ্বাসকষ্টসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। আমরা স্থানীয় প্রশাসন থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছিনা। ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানেও তা থামছেনা।

এব্যাপারে সন্ধ্যা সাড়ে ৫টায় র ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আশিক উন-নবী তালুকদার’র বলেন, অভিযান চলমান থাকবে

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000