মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১:৫৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
বিশ্বনাথের লামাকাজীতে ২নং ওয়ার্ডে চেয়ারম্যান প্রার্থী আছকিরের উঠান বৈঠকবিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের সুস্থতা কামনায় মিলাদ ও দোয়ানীলফামারীর সৈয়দপুরে ১০০ শয্যা হাসপাতালের এ্যাম্বুলেন্স দুইটিই রোগাক্রান্ত, চিকিৎসার উদ্যোগ নেইশাবির ঘটনায় পটুয়াখালীর দুমকিতে ছাত্রদলের প্রতিকী অনশনআন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের আর্থিক লেনদেনের ছয়টি অ্যাকাউন্ট বন্ধের অভিযোগবিশ্বনাথের লামাকাজীতে ‘ঘোড়া’ প্রতিকের নির্বাচনী মিছিল ও সভাদুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে পটুয়াখালীতে বহুযাত্রী আহতসিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলা চেয়ারম্যান নুনু মিয়া’র মা গুরুতর অসুস্হ, দোয়ার আরজিবিশ্বনাথে নির্বাচনী আচরণবিধি অবহিতকরণ ও মতবিনিময় সভাসিলেটের বিশ্বনাথে উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা

কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী পুত্র দিল নেওয়াজকে সৈয়দপুরে দল থেকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত

মোঃজাকির হোসেন,নীলফামারী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ৯৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

দৈনিক দাবানলে একের পর এক স্থানীয় যুদ্ধাপরাধী রাজাকার পুত্র দিল নেওয়াজ খানের মাদক ব্যবসা, চোরাচালান, চাঁদাবাজি, ভূমিদস্যুতা, ছিনতাইসহ আরো অনেক অপকর্মের একাধিক সংবাদ পত্রিকায় প্রকাশিত হলে নড়ে চড়ে বসেন স্থানীয় পৌর ও উপজেলা আওয়ামীলীগ।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুষ্পষ্ট নির্দেশনা দলের মধ্যে রাজাকার সন্তান, যুদ্ধাপরাধী, জামাত-শিবির থাকতে পারবে না। তারই ধারাবাহিকতায় গত কয়েকদিন আগে স্থানীয় পৌর ও উপজেলা আওয়ামীলীগ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটি ও দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক বরাবর উক্ত রাজাকার ও কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধীর সন্তান দিল নেওয়াজ খানের বিরুদ্ধে ১০ পৃষ্ঠার সকল প্রকার তথ্য প্রমানসহ দল থেকে সকল পদ পদবী বাতিল করে দল থেকে বহিস্কারের আবেদন করেন।

আবেদন পত্রে ১৯৭৩ সালে তার পিতা নইম খান ওরফে নইম গুন্ডার তৎকালিন যুদ্ধাপরাধীর মামলা নং-৫১/৭৩ জজ কোর্ট, রংপুর, ২০১৫ সালে এই দিল নেওয়াজ খান কর্তৃক মাড়োয়ারীর বাড়ি দখল, তার পূর্বে অস্ত্র দেখিয়ে আইউব পাম্প থেকে ট্রাক ছিনতাই, প্রয়াত মেয়র উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতির বোনকে তারই বাড়িতে অপমান ও শারিরিকভাবে লাঞ্ছিত করা, সাবেক এক সেনা সদস্যের বাড়ি দখলের চেষ্টা অভিযোগ নং-৫১২, ১০/০৫/২০২১ইং, শহীদ ডাঃ জিকরুল হক রোডে রেলের কোয়র্টার ভেঙ্গে প্রকাশ্য দিবালোকে রেলের জমিতে অবৈধভাবে বহুতল ভবন নির্মান, মুন্সীপাড়ায় ৬৪৮ নং কোয়ার্টার অবৈধভাবে দখল করে মাদক ও জুয়ার আড্ডা, ২০২০ সালে সৈয়দপুর সরকারী কলেজের অধ্যক্ষের নিকট দুই লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী, বিসিক শিল্প নগরীতে ব্যবসায়ী নাদিমের কাছে এক লক্ষ টাকা চাঁদা আদায়, ২০২১ সালে পৌর নির্বাচনে বিএনপি কাউন্সিলরদের নির্বাচনে জিতিয়ে দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এমনকি ভিশন টিভি নামে একটি অবৈধ আইপি টেলিভিশন চালু করেছে এই রাজাকার পুত্র।

মাঠ পর্যায়ে গোপন সূত্রে জানা যায় এই সকল অপকর্মের মুল শক্তি স্থানীয় কুখ্যাত রেল ভূমিদস্যু, দূর্নীতিবাজ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোকছেদুল মোমিন এর প্রত্যক্ষ সহযোগীতা ও মদদপুষ্ট হয়ে এবং নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী ও আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক এর নাম ভাঙ্গিয়ে সে এইসব অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালেদ মাহমুদ চৌধুরী জাতীয় পতাকাবাহী গাড়িতে এই কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী ও রাজাকারের বাড়িতে চায়ের নিমন্ত্রনে আসেন।

আবেদনে নেতৃবৃন্দ বলেন, যদি রাজাকার পুত্রকে দল থেকে চিরতরে বহিস্কার করা না হয় তাহলে তারা সৈয়দপুর আওয়ামীলীগের সকল নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে আরো বৃহত্তর কর্মসূচীর প্রণয়ন করবেন বলে তারা জানান।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000