মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:১১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ফ্রান্সে শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপনবাকোডিসির পক্ষ থেকে সুনামগঞ্জের শান্তিগঞ্জে বাড়ি নির্মান ও গবাদিপশু বিতরণদূর্গাপূজা হিন্দু ধর্মাবলম্বী এক হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলেন সৈয়দপুর পৌর মেয়েরপরারাষ্ট্র মন্ত্রীর সাথে যুক্তরাষ্ট্রে জালালাবাদ এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়বকশীগঞ্জে ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনআন্তর্জাতিক অহিংস দিবস উপলক্ষ্যে বিশ্বনাথে পিএফজির মানববন্ধনওসমানীনগরে ঢেউটিন ও নগদ অর্থ বিতরণওসমানীনগরের রাসেল সিলেট ল কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনোনীতইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ সংরক্ষণ অভিযান -২০২২ জনসচেতনতামৃলক সভাদুর্গাপুজা উপলক্ষে মৌলভীবাজার জেলা পুলিশের সাইবার সেল ও মনিটরিং সেল গঠন

ওসমানীনগরে সৎ ভাইদের হামলায় স্ত্রী আহত,৩মাস ধরে এলাকা ছাড়া পরিবার

ওসমানীনগর প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১২ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সিলেটের ওসমানীনগরে সৎ ভাইদের হামলায় আহত হয়ে স্ত্রী সন্তান নিয়ে ৩মাস ধরে এলাকা ছাড়া রয়েছে এক পরিবার। এই সুযোগে সৎ ভাইয়েরা অবাধে কেটে নিচ্ছেন বাড়ির গাছপালা ভাংচুর করছেন ঘর বাড়ি। নিরুপায় হয়ে ভূক্তভোগি পরিবার মাননীয় সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলগ্রহণকারী আদালত নং-০১ সিলেট এ একটি মামলা দায়ের করেছেন।



মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ এপ্রিল দুপুর ১২টায় উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের জহিরপুর গ্রামে আব্দুন নূরের সৎ ভাই নজির মিয়া (২৬), মনির মিয়া (২৮), খলিল মিয়া (২৯), নানু মিয়া (৫৫) ও আব্দুস সাত্তার (৬৫) দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আব্দুন নূরের ভূমি দখল করতে আসেন। তারা আব্দুন নূরের মালিকানাধীন জমিতে গাছ কাটলে তার স্ত্রী সুলতানা বাঁধা দেন। এতে তার সৎ ভাইয়েরা ক্ষিপ্ত হয়ে সুলতানাকে বেদড়ক মারপিট করে। সৎ ভাইদের মারপিটে আব্দুন নূরের স্ত্রী সুলতানা বেগম মারাত্মক আহত হন। খবর পেয়ে আশপাশে লোকজন এসে আহত সুলতানাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে স্বামী সন্তান নিয়ে তিনি জীবন রক্ষার্থে বুরুঙ্গাস্থ এক আত্মীয়ের বাড়িতে ৩মাস ধরে অবস্থান করছেন।

মামলার বাদী আব্দুন নূর জানান, সৎ ভাইয়েরা আমার জাগা জমি দখল করার জন্য ২৮ এপ্রিল আমার পরিবারের উপর হামলা করছে। তারা আমার বাড়ি থেকে ১০টি গাছ কেটে নিয়েছে। ২০১৫ সালেও তারা একবার আমার স্ত্রীকে মারধর করেছিল। তারা চায় আমি যেন বাড়িতে না থাকি। এ সুযোগে তারা আমার বাড়িঘর দখল করতে চায়। আমি পরিবার নিয়ে প্রাণের ভয়ে বর্তমানে আত্মীয় বাড়িতে আছি।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুৃলিশের এসআই লাকি বলেন, আমি বিষয়টি তদন্ত করে মামলার সিডিতে রেখেছি। বিস্তরিত পরে বলব।

উল্লেখ্য ২০১৫ সালের ১১ ডিসেম্বর ও তারিখে আব্দুন নূরের স্ত্রীর উপর একই কায়দায় হামলা করেন তার সৎ ভাইয়েরা। তখন বিষয়টি নিয়ে থানায় মামলা করলে পুলিশ, স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে বিষয়টি আপোষে নিস্পত্তি হয়।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000