শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৬:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
বিশ্বনাথে উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া’র জন্মদিন উপলক্ষ্যে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলজ্বালানী তেল ও নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে সৈয়দপুরে জাপা’র বিক্ষোভ ও সমাবেশকুলাউড়া সরকারি কলেজ থেকে দুই বহিরাগত আটককুমিল্লার দেবীদ্বারে সাংবাদিক মামুনুর রশিদের বিরুদ্ধে ফেইসবুকে মিথ্যা অপপ্রচারের অভিযোগরাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বৃক্ষরোপন কর্মসূচি উদ্ভোদননীলফামারীর সৈয়দপুরে নানা আয়োজনে আশুরা পালনমজুরী বৃদ্ধির দাবিতে চা শ্রমিকদের কর্মবিরতিসিলেটের বিশ্বনাথে সূচনার সমন্বয় সভা অনুষ্টিতজামালপুরের বকশীগঞ্জে স্থলবন্দরে ভারতীয় ট্রাক চাপায় নারী শ্রমিক নিহতরাজনগরে বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিবের জন্ম বার্ষিকী পালিত

এলজিইডির রাস্তায় বড়বড় গর্ত ও নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যাচ্ছে পটুয়াখালীর দুমকির একটি রাস্তা

মোঃমিজানুর রহমান, পটুয়াখালী প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৬৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পটুয়াখালীর দুমকিতে এলজিইডির সড়ক নির্মাণের ৬ মাসের মধ্যে পাকা সড়ক নদীতে ভেঙে যাচ্ছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় উপজেলার পাংগাশিয়া ইউনিয়নের কচাবুনিয়া নদীর পশ্চিমপাড় দিয়ে বয়ে যাওয়া পাকা রাস্তা নেছারিয়া মাদ্রাসা থেকে পুকুরজানা বাজারের মাঝামাঝি অন্তত ২০০ফুট পাকা রাস্তার প্রায় অর্ধেকাংশ নদীতে ভেঙে পড়ে বাকি অংশেও ফাটল ধরেছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ উপজেলা প্রকৌশলীর উদাসীনতায় প্রকল্পে নদীর তীরে পাইলিং বা সাপোর্টিং না থাকায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত নতুন সড়কটি ৬ মাসেই নদী গর্ভে বিলিন হচ্ছে। শুধু নদী গর্ভে বিলিনই নয় পাংগাশিয়া নেছারিয়া মাদ্রাসা থেকে পুকুরজনা পর্যন্ত রাস্তার মধ্যে বড় বড় গর্ত হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে আছে।

সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ার কারণে পার্শবর্তী তেতুল বাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পাংগাশিয়া নেছারিয়া মাদ্রাসা, ধোপার হাট, হাজীর হাটসহ দুমকি উপজেলায় যাতায়তের জন্য তেতুল বাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দাদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলে জানান স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুল বারেক হাওলাদার। অন্যদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে সমস্যায় পড়েছে কোমলমতী শিক্ষার্থীরা। রাস্তার পাশে রয়েছে সরদার, হাওলাদার ও বয়াতী বাড়ির ১০টি বসতঘরের বসবাসরত বাসিন্দারা আতঙ্কিত অবস্থায় বসবাস করছেন।
অটো ড্রাইভার এছহাক ও মুছা হাওলাদার বলেন, রাস্তাটির বিভিন্ন জায়গায় বড় বড় গর্ত হওয়ার কারণে নূন্যতম ৬০টি অটো ড্রাইভার যাতায়াত করতে পারছে না।
প্রতি সপ্তাহে রয়েছে তাদের বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋনের কিস্তি। দ্রুত রাস্তাটির সংস্কারের উপযোগী না করলে রিক্সা, অটো, মাহেন্দ্রা,ভটভটি ড্রাইভাররা বিভিন্ন সমস্যার সম্মূখীন হবে।

এ বিষয়ে সাবেক পাংগাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন সিকদার বলেন, ঠিকাদার তড়িগড়ি করে রাস্তার কার্পেটিং কাজ শেষ করলেও অনেক কাজ ফেলে রেখেছে। নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার, যথাযথ পরিমাপ ঠিক না রাখাসহ নানা অনিয়মের আশ্রয় নেওয়ায় কাজের গুণগতমান ঠিক নেই। তাছাড়া নদীর তীরে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে পাইল-সাপোর্ট না থাকায় জোয়ারের স্রোতে নিচের মাটি সরে যাওয়ায় সড়ক ভেঙে যাচ্ছে। উল্লেখ্য যে নদীর পাশের রাস্তা হওয়ায় কালভার্টের প্রয়োজন থাকলেও প্রকল্পে কোন কালভার্ট রাখেনি।

এ বিষয়ে উপজেলা প্রকৌশলী সাথে আলাপকালে বলেন রাস্তাটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে থাকায় বিধিনিষেধের কারণে কালভার্ট করা সম্ভব হয়নি।
পাংগাশিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট গাজী নজরুল ইসলাম বলেন, উপজেলা প্রকৌশলীকে অবিহিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে দুমকি উপজেলা প্রকৌশলী মো. আজিজুর রহমান জানান, সড়কের ভাঙন দ্রুত মেরামতের জন্য প্রকল্প পটুয়াখালী এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীর দপ্তরে তথ্য প্রেরণ করা হয়েছে। যতদ্রুত সম্ভব রাস্তাটি সংস্কার করা হবে।
এ বিষয়ে দুমকি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ এর সাথে আলাপকালে জানান, সড়কটি সরেজমিনে পরিদর্শন করা হয়েছে এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করার জন্য কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jphostbd-15000